মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ || ৩ আষাঢ় ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১১:২৭, ১০ জুন ২০২৪

ইউরোপের সেরা ৬ বৃত্তি

ইউরোপের সেরা ৬ বৃত্তি
সংগৃহীত

বিদেশে যারা পড়াশোনা করতে চান, তাদের পছন্দের শীর্ষে ইউরোপের দেশগুলোর বিশ্ববিদ্যালয়। ইউরোপের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা ধরনের স্কলারশিপের সুযোগ থাকে। ফলে ইউরোপের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে টিউশন ফি মওকুফের পাশাপাশি বিভিন্ন আর্থিক সুবিধা পাওয়া যায়। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরাও এসব স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারেন। 

সুইডিশ ইনস্টিটিউট স্কলারশিপ

২০১২ সাল পর্যন্ত বিনা টিউশন ফিতে সুইডেনের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়াশোনার সুযোগ ছিল। এরপর থেকে সেখানে টিউশন ফি পরিশোধ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে সুইডিশ ইনস্টিটিউট থেকে স্কলারশিপ পেলে কোনো ফান্ড ছাড়াই  পড়াশোনা করার সুযোগ রয়েছে। সুইডেনে স্নাতকোত্তর করতে আগ্রহী হলে এই স্কলারশিপের জন্য চেষ্টা করা যেতে পারে। সুইডিশ ইনস্টিটিউট থেকে প্রদত্ত স্কলারশিপ টিউশন ফি ছাড়াও জীবনযাত্রার ব্যয়, বীমা এবং ভ্রমণ খরচ দিয়ে থাকে। বাংলাদেশ, নেপাল, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়াসহ বেশকিছু দেশের শিক্ষার্থীরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে।  
বিস্তারিত জানতে - https://si.se/en/apply/scholarships/ 

ব্রিটিশ শেভেনিং স্কলারশিপ
ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অফিস (এফসিও) এবং এর অংশীদার সংস্থার অর্থায়নে ব্রিটিশ শেভেনিং স্কলারশিপ দেওয়া হয়। শেভেনিং অ্যাওয়ার্ড সাধারণত ২ ধরনের হয়ে থাকে– শেভেনিং স্কলারশিপ এবং শেভেনিং ফেলোশিপ। ব্রিটিশ দূতাবাস এবং হাইকমিশন কর্তৃক বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে স্কলারশিপ গ্রহণকারীদের নির্বাচন করা হয়। এক বছরের স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রোগ্রামের জন্য এই স্কলারশিপ টিউশন ফি, নির্দিষ্ট হারে আবাসিক ভাতা, যুক্তরাজ্যে একটি ইকোনমি ক্লাসের রিটার্ন বিমানের ভাড়া এবং ওয়ার্কশপের জন্য অন্যান্য ভ্রমণ খরচ কভার করে। 
বিস্তারিত জানতে - https://www.chevening.org/

আইফেল এক্সিলেন্স স্কলারশিপ প্রোগ্রাম
ফ্রান্স ইতোমধ্যে বিনা টিউশনে শিক্ষার জন্য পরিচিতি পেয়েছে। এ ছাড়া ফ্রেঞ্চ সংস্থা ক্যাম্পাস ফ্রান্স ইন্টারন্যাশনাল শিক্ষার্থীদের আইফেল এক্সিলেন্স স্কলারশিপ প্রোগ্রামের জন্য আবেদন করতে সহায়তা করে। ফরাসি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে স্নাতকোত্তর এবং পিএইচডি করার জন্য বিদেশি শিক্ষার্থীদের আকৃষ্ট করতে ইউরোপ এবং পররাষ্ট্র বিষয়ক ফরাসি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এটি তৈরি করা হয়। আইফেল এক্সিলেন্স স্কলারশিপ প্রোগ্রাম মাসিক ভাতা, রিটার্ন ট্রিপ, সাংস্কৃতিক কার্যক্রম এবং স্বাস্থ্য বীমার খরচ কাভার করে। স্নাতকোত্তর পর্যায়ে উন্নয়নশীল দেশ থেকে ৩০ বছর পর্যন্ত এবং পিএইচডি প্রোগ্রামে উন্নয়নশীল ও শিল্পোন্নত থেকে ৩৫ বছর বয়স পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারে। 
বিস্তারিত জানতে - https://www.campusfrance.org/en/eiffel-scholarship-program-of-excellence

ড্যাড স্কলারশিপ
জার্মানিতে ইংরেজি ভাষার প্রোগ্রামে বিভিন্ন বিষয়ে পড়াশোনার সুযোগ রয়েছে। এ ছাড়া এখানকার পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনা টিউশন ফিতেও পড়া যায়। জার্মানি সরকারের অনুমোদনে দেশের সবচেয়ে বড় সংস্থা ড্যাড এশিয়া, আফ্রিকা, আমেরিকার কিছু অংশ এবং পূর্ব ইউরোপের তরুণ এবং পেশাদার শিক্ষার্থীদের স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর পর্যায়ে জার্মান বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের জন্য প্রতি বছর স্কলারশিপ দিয়ে থাকে। 
বিস্তারিত জানতে  https://www2.daad.de/deutschland/stipendium/datenbank/en/21148-scholarship-database/
গেটস কেমব্রিজ স্কলারশিপ
গেটস কেমব্রিজ স্কলারশিপ যুক্তরাজ্যের বাইরের দেশের সেরা শিক্ষার্থীদের কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্ণকালীন স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনের জন্য দেওয়া হয়। স্কলারশিপটি টিউশন ফি কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পোজিশন ফি, বিমান ভাড়া এবং ভিসা খরচ কাভার করে। 
বিস্তারিত জানতে - http://www.gatescambridge.org/

রোডস স্কলারশিপ
১৯০২ সালে সেসিল রোডস কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত রোডস হলো বিশ্বের প্রাচীনতম এবং সম্ভবত সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ আন্তর্জাতিক বৃত্তি প্রোগ্রাম। এটির মাধ্যমে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মেধাবী শিক্ষার্থীরা স্নাতকোত্তর করার সুযোগ পান। রোডস স্কলারশিপ বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় খরচ, ব্যক্তিগত উপবৃত্তি, স্বাস্থ্য বীমা এবং বিমান ভাড়া কাভার করে।
বিস্তারিত জানতে https://www.rhodeshouse.ox.ac.uk/scholarships/the-rhodes-scholarship/ v

সূত্র: সমকাল

সর্বশেষ

সর্বশেষ