শুক্রবার   ২৪ মে ২০২৪ || ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রকাশিত: ০৬:১০, ১৫ আগস্ট ২০২৩

বৃষ্টির পানি দিয়ে ওজু করা, যা বলে শরিয়ত

বৃষ্টির পানি দিয়ে ওজু করা, যা বলে শরিয়ত

আকাশ থেকে বর্ষিত বৃষ্টির পানি মানুষের জন্য মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে এক বিশেষ নেয়ামত। এবং বিশুদ্ধ পানির অন্যতম এক উৎস। পবিত্র কোরআনুল কারিমে আল্লাহ তাআলা বলেছেন, ‘তিনি আকাশ থেকে তোমাদের উপর বৃষ্টি বর্ষণ করেন, আর যাতে এর মাধ্যমে তিনি তোমাদেরকে পবিত্র করেন’। (সূরা: আনফাল, আয়াত: ১১)

অন্য আয়াতে আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘আমি আকাশ থেকে বিশুদ্ধ পানি বর্ষণ করি’।’ (সূরা: ফুরকান, আয়াত: ৪৮) অন্য আয়াতে আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘আল্লাহ আকাশ হতে বারি বর্ষণ দ্বারা মৃতপ্রায় ধরিত্রীকে পুনর্জীবিত করেন; তাতে যাবতীয় জীবজন্তুর বিস্তার ঘটান; এতে ও বায়ুর দিক পরিবর্তনে এবং আকাশ পৃথিবীর মধ্যে নিয়ন্ত্রিত মেঘমালায় জ্ঞানবান জাতির জন্য নিদর্শন রয়েছে’। (সূরা: আল-বাকারা, আয়াত: ১৬৪)

আরো বর্ণিত হয়েছে, ‘আর তিনি আকাশ হতে বারি বর্ষণ করেন, তা দ্বারা তোমাদের জীবিকাস্বরূপ ফলমূল উৎপাদন করেন’। (সূরা: আল-বাকারা, আয়াত: ২২)

কোরআনের আয়াতের মাধ্যমে বুঝা যায় আকাশ থেকে নেমে আসা বৃষ্টির পানি পবিত্র। তাই নামাজ, কোরআন স্পর্শ করে তেলাওয়াত, হজ-ওমরার তাওয়াফ করতে পবিত্রতা অর্জনের জন্য বৃষ্টির পানি ব্যবহার করা যাবে। তবে বৃষ্টির পানিতে বাহির থেকে অপবিত্র কিছু পড়লে এবং এর কারণে পানির রঙ, গন্ধ, স্বাদ পরিবর্তন হয়ে গেলে তা দিয়ে আর পবিত্রতা অর্জন করা যাবে না।

কারণ, এক হাদিসে আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘পানি পবিত্র, কোনো নাপাকী এতে মিলিত হলেই তা অপবিত্র হয়ে যায় না; যতক্ষণ না তার রং বা স্বাদ বা গন্ধ পরিবর্তন হয়’। 

দৈনিক গাইবান্ধা

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ