• বুধবার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৬ ১৪২৮

  • || ১৩ সফর ১৪৪৩

পশুর যেসব ত্রুটি থাকলে কোরবানি হবে না

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৩ জুলাই ২০২১  

ইসলামি বিধান মতে, কোরবানি করা অত্যন্ত তাৎপর্যমণ্ডিত ও ফজিলতপূর্ণ ইবাদত। সাহেবে নিসাব তথা সামর্থ্যবান ব্যক্তিদের কোরবানি আদায় করতে হবে। একটি কোরবানি হলো একটি ছাগল, একটি ভেড়া বা একটি দুম্বা অথবা গরু, মহিষ ও উটের সাত ভাগের এক ভাগ। অর্থাৎ একটি গরু, মহিষ বা উট সাতজন শরিক হয়ে বা সাত নামে অর্থাৎ সাতজনের পক্ষ থেকে কোরবানি করা যায়।

কোরবানির পশু যাচাই-বাছাই করে কিনতে হ‌বে। কারণ কোরবানির পশু হতে হবে দোষত্রুটিমুক্ত। পশুর মধ্যে যেসব ত্রুটি থাকলে কোরবানি দেওয়া যাবে না, সেগুলো হচ্ছে-

১. দৃষ্টিশক্তি না থাকা।
২. শ্রবণশক্তি না থাকা।
৩. অত্যন্ত দুর্বল ও জীর্ণ-শীর্ণ হওয়া।
৪. এই পরিমাণ লেংড়া যে জবাই করার স্থান পর্যন্ত হেঁটে যেতে অক্ষম।
৫. লেজের বেশির ভাগ অংশ কাটা।
৬. জন্মগতভাবে কান না থাকা।
৭. কানের বেশির ভাগ কাটা।
৮. গোড়াসহ শিং উপড়ে যাওয়া।
৯. পাগল হওয়ার কারণে ঘাস-পানি ঠিকমতো না খাওয়া।
১০. বেশির ভাগ দাঁত না থাকা।
১১. রোগের কারণে স্তনের দুধ শুকিয়ে যাওয়া।
১২. ছাগলের দুটি দুধের যেকোনো একটি কাটা।
১৩. গরু বা মহিষের চারটি দুধের যেকোনো দুটি কাটা।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা