• বুধবার   ২৯ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৪ ১৪২৯

  • || ২৭ জ্বিলকদ ১৪৪৩

চঞ্চলের দোকানে মিষ্টি কিনতে এলো জিন!

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৫ এপ্রিল ২০২২  

শৈশবে দাদা-দাদি, নানা-নানি ও মা-খালাদের কাছে ভূতের গল্প শোনেননি, এমন লোক খুব একটা পাওয়া যাবে না। গা ছমছম করা সেই ভূতের গল্পগুলোর বেশির ভাগই মানুষের মুখে মুখে রয়ে গেছে। কিছু কিছু গল্প স্থান পেয়েছে বইয়ের পাতায়। সেই সব গল্প এবার সময়ের প্রেক্ষাপটে নতুনভাবে পর্দায় নিয়ে এসেছে ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম চরকি।

এসব গল্প নিয়ে নুহাশ হুমায়ূন নির্মাণ করেছেন অ্যান্থলজি সিরিজ ‘পেটকাটা ষ’। হরর ঘরানার চারটি গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে সিরিজটি। পর্বগুলোর নাম—‘বিল্ডিংয়ে মেয়ে নিষেধ’, ‘মিষ্টি কিছু’, ‘লোকে বলে’ ও ‘নিশির ডাক’।

গত ৭ এপ্রিল সিরিজটির প্রথম পর্ব ‘এই বিল্ডিংয়ে মেয়ে নিষেধ’ মুক্তি পেয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) রাত ১০টা ৫৯ মিনিটে মুক্তি পাচ্ছে সিরিজটির দ্বিতীয় পর্ব ‘মিষ্টি কিছু’।

এতে অভিনয় করেছেন আফজাল হোসেন, চঞ্চল চৌধুরী, কাজী নওশাবা আহমেদ, প্রীতম হাসান, নভেরা রহমান, মাসুদা খান, মোরশেদ মিশু প্রমুখ।

এ প্রসঙ্গে নির্মাতা নুহাশ হুমায়ূন বলেন—‘কিছু বাংলা ভূতের গল্প আছে আমাদের সবার শোনা। মাছ রাঁধলে পেতনি আসে, মিষ্টির দোকানে রাতে জিন আসে, নিশির ডাক শুনতে নেই, খোলা চুলে সন্ধ্যায় বের হতে নেই। এই সব ক্ল্যাসিক বাংলা ভূতের গল্প কিন্তু আমাদের ঐতিহ্য। এক প্রজন্ম থেকে আরেক প্রজন্মের অলিখিত গল্প। সেই ক্ল্যাসিক গল্পগুলোকেই আমি নতুন করে এই সিরিজে উপস্থাপন করেছি।’

সম্প্রতি প্রকাশ হয়েছে এর টিজার। সেখানে দেখা যায়, মিষ্টির দোকানদার চঞ্চল। এক রাতে হঠাৎ তার দোকানে মিষ্টি কিনতে আসেন একজন লোক। ক্ষাণিক পর চঞ্চল বুঝতে পারেন, ওই ব্যক্তি আসলে মানুষ না, জিন!

চরকির প্রধান পরিচালনা কর্মকর্তা রেদওয়ান রনি বলেন, ‘চরকি সব সময় চেষ্টা করে দর্শকদের মৌলিক ও ভিন্ন ঘরানার কনটেন্ট উপহার দেওয়ার। সেই ধারাবাহিকতায় এবার ভৌতিক বা হরর কনটেন্ট নিয়ে আসছে। আশা করছি, সিরিজ দেখে দর্শক হতাশ হবেন না।’

‘পেটকাটা ষ’ নির্মাণে সহযোগিতা করেছে লিটেল বিগ ফিল্মস। এর নির্বাহী প্রয়োজক হিসেবে কাজ করেছেন রিমন হোসেন খান ও আবরার জাহিন রাফি। চারটি গল্পের মধ্যে একটি নুহাশ হুমায়ূন ও দুইটি সম্পাদনা করেছেন ফুয়াদ সৌরভ। অন্য একটি যৌথভাবে সম্পাদনা করেছেন নুহাশ হুমায়ূন ও ফুয়াদ সৌরভ।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা