বৃহস্পতিবার   ১৮ এপ্রিল ২০২৪ || ৪ বৈশাখ ১৪৩১

প্রকাশিত: ১০:৪০, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

হালান্ডের রেকর্ডের রাতে লিগ জমিয়ে তুলল ম্যানসিটি

হালান্ডের রেকর্ডের রাতে লিগ জমিয়ে তুলল ম্যানসিটি
সংগৃহীত

প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে শেষবার ম্যানচেস্টার সিটি ঘরের মাঠে হেরেছিল এই ব্রেন্টফোর্ডের কাছে। সেটাও ২০২২ সালের কথা। মাঝে অনেকটা দিন পার হয়েছে। কিন্তু সিটিজেন্সদের তাদের মাঠ ইতিহাদে হারানো হয়নি আর কারোরই। লম্বা বিরতির পর গতকাল (মঙ্গলবার) আবার সেই ব্রেন্টফোর্ডই ভয় ধরিয়ে দিয়েছিল তাদের। সফরকারীদের একের পর এক আক্রমণে কিছুটা হলেও নাজুক ছিল সিটি।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত এসবের কিছুই হয়নি। গোলমেশিন আর্লিং হালান্ড উদ্ধার করলেন পেপ গার্দিওলার শিষ্যদের। ৭১ মিনিটে তার ওই এক গোলই সিটিকে দিয়েছে ৩ পয়েন্ট। এই গোলের মাধ্যমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে নিজের সব প্রতিপক্ষের বিপক্ষে গোল করার রেকর্ড গড়েছেন। সিটিও জমিয়ে তুলেছে এবারের মৌসুমের শিরোপার লড়াই। 

ম্যানচেস্টার সিটি ১ -০ ব্রেন্টফোর্ড 

গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর হওয়ার কথা ছিল ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে ম্যাচ। তবে ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের কারণে সেই ম্যাচ পিছিয়ে গেল দুই মাস। চলতি সপ্তাহে সিটিকে দুটো ম্যাচ খেলতে হচ্ছে, তাদের ওপর যে ঝড় বইছে, সেটার কিঞ্চিত আভাস দেখা গেল এই ম্যাচে। 

হালান্ড, জুলিয়ান আলভারেজ, বার্নাদো সিলভাদের কেউই পারেননি গোলের প্রত্যাশা পূরণ করতে। অথচ প্রথম ৪৫ মিনিটে ব্রেন্টফোর্ডের গোলে ১৭টি শট নিয়েছিল সিটি। অবশ্য ৩৭ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত সিটি। অস্কার ববের শট গোললাইন থেকে ফিরিয়ে দেন ব্রেন্টফোর্ড ডিফেন্ডার বেন মি। প্রথমার্ধে সিটির বড় সুযোগ ছিল সেটিই। 

তবে সার্বিক বিবেচনায় প্রথমার্ধে সেরা সুযোগটা পেয়েছিল ব্রেন্টফোর্ড। ১৫ মিনিটে ফ্রাঙ্ক ওনইয়েকা এডারসনকে একা পেয়েও শট নেন একেবারে শরীর বরাবর। পরের মিনিটেই ফ্রি কিক থেকে ইভান টনির শট কাঁপন ধরায় সিটির বুকে। ২৫ মিনিটে বক্সে ফাঁকায় বল পেয়েও উড়িয়ে মারেন জুলিয়ান আলভারেজ। 

৭১ মিনিটে অবশেষে ভাঙ্গে ডেডলক। আলভারেজের পাস পেয়ে অনেকটা পথ দৌড়েছিলেন হালান্ড। এরপর বক্সের বাইরে নেয়া জোরালো শটে পরাস্ত করেন ব্রেন্টফোর্ড কিপারকে। এটাই শেষপর্যন্ত গড়ে দেয় ম্যাচের ভাগ্য। 

এই গোলের পর বেশকিছু কীর্তি নিজের করে নিয়েছেন নরওয়ের এই স্ট্রাইকার। লিগে সব প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে গোলের কীর্তি তো আছেই, এছাড়াও চলতি লিগ মৌসুমে হালান্ড সিটির হয়ে প্রথম গোল পেলেন সাতবার, যা যেকোনো দলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। 

এ জয়ের পর ২৫ ম্যাচে সিটির পয়েন্ট ৫৬। তিনে নেমে যাওয়া আর্সেনালের পয়েন্ট ৫৫ আর শীর্ষে থাকা লিভারপুলের সংগ্রহ ৫৭ পয়েন্ট। তালিকার শীর্ষ তিন দলের মধ্যে এখন শুধু ১ পয়েন্ট করে ব্যবধান।

সূত্র: ঢাকা পোস্ট

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ

শিরোনাম

ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ভাতা বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপনদেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীরঈদে বেড়েছে রেমিট্যান্স, ফের ২০ বিলিয়ন ডলারের ওপরে রিজার্ভ১৪ কিলোমিটার আলপনা বিশ্বরেকর্ডের আশায়তাপপ্রবাহ বাড়বে, পহেলা বৈশাখে তাপমাত্রা উঠতে পারে ৪০ ডিগ্রিতেনেইমারের বাবার দেনা পরিশোধ করলেন আলভেজ‘ডিজিটাল ডিটক্স’ কী? কীভাবে করবেন?বান্দরবানে পর্যটক ভ্রমণে দেয়া নির্দেশনা চারটি স্থগিতআয়ারল্যান্ডের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দনসুইজারল্যান্ডে স্কলারশিপ পাওয়ার উপায় কিবৈসাবি উৎসবের আমেজে ভাসছে ৩ পার্বত্য জেলাসবাই ঈদের নামাজে গেলে শাহনাজের ঘরে ঢুকে প্রেমিক রাজু, অতঃপর...