শুক্রবার   ২৪ মে ২০২৪ || ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রকাশিত: ১২:১২, ২০ নভেম্বর ২০২৩

আপডেট: ১২:১৫, ২০ নভেম্বর ২০২৩

চাকরি গেল চ্যাটজিপিটি উদ্ভাবকের, স্যাম অল্টম্যানের মেধায় আস্থা নেই?

চাকরি গেল চ্যাটজিপিটি উদ্ভাবকের, স্যাম অল্টম্যানের মেধায় আস্থা নেই?
সংগৃহীত

প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নতুন যুগের সূচনা করে বছরখানেক আগে আত্মপ্রকাশ করেছিল চ্যাটজিপিটি। কৃত্রিম মেধার এহেন দাপটে রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায় বিশ্বে। যন্ত্রের দাপটে এবার বুঝি চাকরি যায় মানুষের! ওঠে গেল গেল রব। সেই চ্যাটজিপিটি-র স্রষ্টা ‘ওপেন এআই’ সংস্থার সিইও স্যাম অল্টম্যানকে সরাল বোর্ড। নিজের তৈরি প্রতিষ্ঠান থেকেই বিতাড়িত হতে হল তাকে।

দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের প্রতিবেদন মোতাবেক, শুক্রবার স্যাম অল্টম্যানকে সিইও পদ থেকে সরানোর সিদ্ধান্ত নেয় ‘ওপেন এআই’-র বোর্ড। এক ব্লগ পোস্টে বোর্ড জানায়, অল্টম্যানের উপর আস্থা নেই। প্রতিষ্ঠানকে নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা নেই তার।

জানা গেছে, সাময়িকভাবে ‘ওপেন এআই’-র সিইও পদে বসছেন বর্তমানে টেকনোলজি অফিসার মিরা মুরাতি। এ নিয়ে এক্স হ্যান্ডেলে অল্টম্যান লেখেন, ‘ওপেন এআই সংস্থায় খুব ভালো সময় কাটিয়েছি। ব্যক্তিগতভাবে এই সময় আমার মধ্যে একটা পরিবর্তন এনেছে। এর পর কী হবে তা পরে জানাব।’

এদিকে, এই ঘটনার পরই চ্যাটজিপিটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা তথা সংস্থার প্রেসিডেন্ট গ্রেগ ব্রকম্যান নিজে থেকেই পদত্যাগ করেন। সোশাল মিডিয়া পোস্টে তিনি লেখেন, ‘আট বছর আগে আমার ফ্ল্যাট থেকেই কাজ শুরু হয়েছিল। আমরা যা তৈরি করতে সক্ষম হয়েছি, তা নিয়ে আমি গর্বিত। একসঙ্গে আমরা অনেক কঠিন এবং ভালো সময় কাটিয়েছি। একসঙ্গে অনেক কাজ করেছি বলেই সাফল্য পেয়েছি।’

চ্যাটজিপিটির ফলে বহু মানুষের চাকরি যাবে বলে আগেই আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন অল্টম্যান। এক সাক্ষাৎকারে তিনি পরিষ্কার দাবি করেছেন, চ্যাটজিপিটির অনেক ভালো দিক থাকলেও এর সবটাই অস্তিত্ববাচক নয়।

সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ