মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ || ৩ আষাঢ় ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১১:২৩, ২১ মে ২০২৪

আপডেট: ১১:২৪, ২১ মে ২০২৪

গাইবান্ধার ৩ উপজেলায় চলছে ভোটগ্রহণ

গাইবান্ধার ৩ উপজেলায় চলছে ভোটগ্রহণ
সংগৃহীত

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে গাইবান্ধা সদর, গোবিন্দগঞ্জ ও পলাশবাড়ী  এই তিন উপজেলায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিরতীহীনভাবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে গাইবান্ধা সদর উপজেলার একটি পৌরসভা ও ১৩টি ইউনিয়নে ১৬৩টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। এ উপজেলায় ৩ লাখ ৮৬ হাজার ৫৯৯ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এরমধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৯০ হাজার ১৩৮ জন, নারী ১ লাখ ৯৬ হাজার ৪৫৫ জন ও তৃতীয় লিঙ্গের ৬ জন।

সদরে আনারস প্রতীকে আব্দুল হামিদ মিয়া, দোয়াত-কলম প্রতীকে আমিনুর জামান রিংকু, ইস্তেকুর রহমান (কাপ-পিরিচ), নূর-এ-হাবীব টিটন (টেলিফোন), মকদুবর রহমান সরকার (হেলিকপ্টার), মাজেদুল ইসলাম রিবন (ঘোড়া) এবং শাহ্ আহসান হাবিব রাজিব মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে ৭ জন, ভাইস-চেয়ারম্যান ৮ জন এবং নারী ভাইস-চেয়ারম্যান পদে ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অন্যদিকে একটি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত পলাশবাড়ী উপজেলায় ৮৩টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে। এ উপজেলায় ২ লাখ ২৩ হাজার ২০৯ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এরমধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৯ হাজার ২০৬ জন, নারী ১ লাখ ১৪ হাজার ২ জন ও তৃতীয় লিঙ্গের রয়েছেন ১জন।

নির্বাচনে  মোটরসাইকেল প্রতীকে এ.কে.এম মোকছেদ চৌধুরী বিদ্যুত, জরিদুল হক (কাপ-পিরিচ), তহিদুল আমিন মন্ডল সুমন (ঘোড়া), তৌহিদুল ইসলাম (দোয়াত-কলম), নাজিবুর রহমান (আনারস) ও শামিকুল ইসলাম সরকার (শালিক) প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

একইসঙ্গে একটি পৌরসভা ও ১৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ১৭২টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। এ উপজেলায় ৪ লাখ ৪৫ হাজার ৮০৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এরমধ্যে পুরুষ ২ লাখ ২০ হাজার ৫৭৯ জন, নারী ২ লাখ ২৫ হাজার ২২০ জন ও তৃতীয় লিঙ্গের ৬ জন।

নির্বাচনে মোটরসাইকেল প্রতীকে আব্দুল লতিফ প্রধান ও শাকিল আকন্দ বুলবুল আনারস প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে ২ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও গাইবান্ধা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দেওয়ান মওদুদ আহমেদ বলেন, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে ৪৫ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন। নির্বাচনে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে ৬ প্লাটুন বিজিবি, র‌্যাবের ৬টি টিমসহ প্রতি কেন্দ্রে ৫ জন পুলিশ ও ১৩ জন আনসার সদস্য দ্বায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিন উপজেলায় ৩ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্বে আছেন।

সর্বশেষ

সর্বশেষ