বুধবার   ২২ মে ২০২৪ || ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রকাশিত: ০৬:৪৪, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

গাইবান্ধা -৫ আসনে মাহবুবুর রহমান নিটল আ. লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী

গাইবান্ধা -৫ আসনে মাহবুবুর রহমান নিটল আ. লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে, ৩৩ গাইবান্ধা-৫ ( সাঘাটা – ফুলছড়ি) সংসদীয় আসনে মাহবুবুর রহমান নিটল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়েছেন। জানা গেছে, অবিভক্ত বাংলার সাবেক কৃষিমন্ত্রী মরহুম আহমেদ হোসেন উকিলের নাতী এবং কামালের পাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সফল চেয়ারম্যান মৃত: আব্দুল্লাহ আল হাদী এর সুযোগ্য সন্তান মোঃ মাহবুবুর রহমান নিটল।

দীর্ঘদিন থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যক্রমে অংশগ্রহণ সহ আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত কর্মী হিসেবে কাজ করে চলেছেন। তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগ শাখার সহ-সভাপতি। দীর্ঘদিন থেকে সাঘাটা ও ফুলছড়ি এলাকার মানুষের সঙ্গে মিশে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে উপস্থিত এবং সুখে দুঃখে পাশে থেকে আর্থিক সহযোগিতা সহ দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করায় আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্লিন ইমেজের নেতা হিসেবে পরিচিত পেয়েছেন। অবিভক্ত বাংলার সাবেক কৃষিমন্ত্রী মরহুম আহমেদ হোসেন উকিলের নাতী হওয়ায় অনেকেই মনে করছেন সে একজন আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান। এবারে আওয়ামী লীগ দল তাকেই মনোনয়ন দেবেন বলে আশা সবার। গাইবান্ধা – ৫ আসনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য হিসাবে বা নৌকার কান্ডারী হিসাবে দেখতে চায়।

মাহবুবুর রহমান নিটল, আওয়ামী পরিবার থেকে আসা, মন্ত্রী পরিবার থেকে আসা- ব্যক্তি হিসাবে একজন সৎ, যোগ্য এবং ক্লিন ইমেজের। তিনি ২০১৮ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন বঞ্চিত হন এবং ২০২২ সালেও উপ-নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন বঞ্চিত হন। সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলাবাসীর অনেকের দাবি এবারে ২০২৪ সালে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাঁকে নৌকার কান্ডারী হিসাবে মনোনীত করলে অত্র এলাকাবাসী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকবেন এবং নৌকা প্রতীকের বিজয় সুনিশ্চিত হবে। কারণ এবার জাতীয় নির্বাচন প্রতিযোগীতামুলক হবে এবং প্রতীকের সঙ্গে ব্যক্তি ইমেজও লাগবে, তাই অত্র এলাকার জনগণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি কামনা করেছেন। মাহবুবুর রহমান নিটল বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে মনোনয়ন দেন ,তাহলে গাইবান্ধা-৫ আসনে বিপুল ভোটে নৌকা বিজয় হবে ইনশাল্লাহ।

দৈনিক গাইবান্ধা

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ