মঙ্গলবার   ০৫ মার্চ ২০২৪ || ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রকাশিত: ১১:৫৫, ২৭ নভেম্বর ২০২৩

শরীর যতদিন আছে, ততদিন কাজও আছে: রচনা

শরীর যতদিন আছে, ততদিন কাজও আছে: রচনা
সংগৃহীত

জনপ্রিয় অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জিকে এখন আর বড় পর্দায় দেখা যায় না। দীর্ঘ সময় ধরে চলচ্চিত্র অঙ্গন থেকে দূরেই রয়েছেন অভিনেত্রী। তার সমসাময়িক অভিনয়শিল্পীরা বর্তমানে ওটিটির যুগে নিয়মিত কাজ করলেও রচনা ওটিটিতেও নাম লেখাননি।

নিয়মিত টিভির পর্দায় রয়েছেন রচনা। তার হিট টিভি শো ‘দিদি নাম্বার ১’ বেশ ভালোভাবেই চলছে। শোটির সঞ্চালনা করছেন রচনা। শোয়ের সাম্প্রতিক একটি পর্বে অভিনেত্রী নিজের ক্যারিয়ার ও কাজ প্রসঙ্গে কথা বলেছেন।

দিদি নাম্বার ওয়ানে কল্যাণী মণ্ডল, তনুকা চট্টোপাধ্যায়, মানসী সিনহাসহ একাধিক বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর সঙ্গে কথা বলতে বলতে রচনা জানান নিজের কথা।

রচনা বলেন, যতদিন শরীর আছে ততদিন কাজ আছে। কিন্তু আমায় একটা লাইন টানতে হবে কোনো একটা জায়গায়। চাওয়া-পাওয়ার কোনো শেষ নেই। আজ আমি চাইলেই দিদি নাম্বার ওয়ানের পর ১০টা ওয়েব সিরিজ করতেই পারি, কিন্তু আমি জানি সেই লাইনটা কোথায় টানতে হবে। আমার কাছে জীবনে কিছু জিনিসের প্রাধান্য ভীষণ বেশি। আজ পাঁচজন আমরা এখানে দাঁড়িয়ে আছি। এক বছর পর আমরা সবাই একসঙ্গে থাকব কি না জানি না। তাই জীবন যতটুকু আছে ততটুকুকে যদি সুন্দর করে গুছিয়ে নিতে পারি, তাহলে সবটা উপভোগ, উপলব্ধি করা যায়।

টাকার পেছনে ছোটা উদ্দেশ্য নয় জানিয়ে রচনা বলেন, টাকার পেছনে ছুটলে সেটা একটা সময় ছেড়ে চলে যাব। তাই যতটা দেখার দেখে গেলে, করে গেলে সেটা সঙ্গে নিয়ে যাব। জীবন তো একটাই, তাই কাজের পাশাপাশি যা করার, দেখার সেটা করে, দেখে যেতে হবে।

রচনার এমন সহজ স্বীকারোক্তিতে মুগ্ধ হয়ে যান উপস্থিত সবাই। অভিনেত্রীর প্রশংসাও করেন সবাই।

‘দিদি নাম্বার ওয়ান’ বর্তমানে একনাগাড়ে সম্প্রচারিত হওয়া সবচেয়ে পুরনো রিয়ালিটি শো। ২০১০ সালে শুরু হয়েছিল এটির পথচলা। মাঝে কয়েকবার সঞ্চালক বদল হলেও রচনা ব্যানার্জির জায়গায় দর্শকরা আর কাউকে মেনে নিতে পারেননি। বর্তমানে টিআরপিতেও অন্য সব শোয়ের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে রচনার ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’।

 

সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়