শনিবার   ১৫ জুন ২০২৪ || ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রকাশিত: ০৬:১৯, ২৯ মে ২০২৩

পরকীয়া-ডিভোর্স, মিথিলার পর রহস্যময় ইঙ্গিত সৃজিতের

পরকীয়া-ডিভোর্স, মিথিলার পর রহস্যময় ইঙ্গিত সৃজিতের

পরকীয়ার কারণে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলার সঙ্গে বিচ্ছেদ হচ্ছে কলকাতার পরিচালক সৃজিত মুখার্জির। সম্প্রতি এমনই গুঞ্জন ছড়িয়েছে দুই দেশের গণমাধ্যম ও সামাজিক মাধ্যমে। এমনকি এ নিয়ে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতেও চলছে আলোচনা-সমালোচনা। দর্শক কিংবা তারকা, সবার একই প্রশ্ন- আসলেই কি সৃজিত-মিথিলার সাড়ে তিন বছরের সংসার ভাঙছে?

সৃজিত-মিথিলার সংসার ভাঙার গুঞ্জন যখন টক অব দ্য কান্ট্রি, সেই সময় এ নিয়ে রহস্যময় ইঙ্গিত দিলেন সৃজিত। বর্তমানে সৃজিত অবস্থান করছেন মধ্যপ্রদেশে। ‘ব্যোমকেশ’ সিনেমার শুটিংয়ে ব্যস্ত। সেখান থেকেই সাংবাদিকদের সঙ্গে মিথিলাকে ডিভোর্স দেওয়া এবং বিয়েবহির্ভূত সম্পর্ক নিয়ে কথা বলেছেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এ পরিচালক বলেন, আমি আপাতত শুটিংয়ে ব্যস্ত। মিথিলার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে যা রটেছে, সেসব নিয়ে মাথা ঘামাতে রাজি নই।

এছাড়া রোববার বিকেলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে এ পরিচালক ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘টাইম ট্রাভেল শুরু।’ আর হ্যাশট্যাগ দিয়ে লিখেছেন, ‘নিজের শর্তে...’।

এর আগে, শনিবার সৃজিতের সঙ্গে ডিভোর্সের গুঞ্জন ওঠার পরই মিথিলা বলেন, ‘এ খবরের সঙ্গে আমি সম্পৃক্ত নই। খবরে কি আমার নাম আছে?’

এবারই যে প্রথম, তা কিন্তু নয়। আগেও তাদের ডিভোর্সের গুঞ্জন রটেছিল। সেই সময় এসবকে গুঞ্জন দাবি করেছিলেন তারা। এরপর প্রায় বছরখানেক ধরে সংসার করে যাচ্ছেন এ তারকা দম্পতি।

সৃজিত নির্মাণের মাধ্যমে খ্যাতি পাওয়ায় প্রায় সময় কাজে ব্যস্ত থাকতে হয় তাকে। এ কারণে এখন বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির পাশাপাশি এখন বলিউডে একের পর এক কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। এ কাজের কারণে বাংলাদেশেই অধিকাংশ সময় কাটাতে হয় অভিনেত্রী মিথিলার।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বর রেজিস্ট্রি বিয়ে করেন সৃজিত ও মিথিলা। সৃজিতের সঙ্গে বিয়ের আগে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী তাহসানের সঙ্গে ২০০৬ সালের ৩ আগস্ট বিয়ে হয়েছিল মিথিলার। তাদের বিচ্ছেদ হয় ২০১৭ সালের জুলাইয়ে।

দৈনিক গাইবান্ধা

সর্বশেষ

সর্বশেষ