শনিবার   ১৫ জুন ২০২৪ || ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৮:৩১, ২০ মে ২০২৪

সাগরে মাছ ধরা ৬৫ দিন বন্ধ

সাগরে মাছ ধরা ৬৫ দিন বন্ধ
সংগৃহীত

বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশের জলসীমায় মাছ আহরণে রোববার মধ্যরাত থেকে ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। মৎস্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, মে-জুন হচ্ছে সাগরে ইলিশসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছের প্রজনন মৌসুম। প্রজনন নিরাপদ ও প্রজননের পর রেণু মাছের বেড়ে ওঠা নিশ্চিত করতে প্রতিবছর ২০ মে থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত ৬৫ দিন গভীর সমুদ্রে মাছ আহরণে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। এবারও বঙ্গোপসাগর ও তদসংলগ্ন নদীর মোহনায় এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এ সময়ে দেশের সামুদ্রিক জলসীমানায় সব ধরনের মৎস্য শিকার, পরিবহণ ও সংরক্ষণ নিষিদ্ধ ঘোষণায় প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

এদিকে যদিও মৎস্যজীবীদের দাবি, এ সুযোগে ভারতীয় ট্রলারগুলো বাংলাদেশের জলসীমায় ঢুকে মাছ আহরণ করে। তারা ভারত ও বাংলাদেশে একই সময়ে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার দাবি করে আসছেন। এ বিষয়ে বরিশাল বিভাগীয় মৎস্য অধিদপ্তরের উপপরিচালক নৃপেন্দ্র নাথ বিশ্বাস জানিয়েছেন, সাগরে নিষেধাজ্ঞায় ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের এক মাস পার্থক্য। তবে এ সময়ে ভারতীয় জেলেদের বাংলাদেশের জলসীমায় মাছ আহরণের আশঙ্কা নেই। তিনি আরও জানান, সাগরে ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা কার্যকরে টাস্কফোর্স কমিটির সভায় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ সময়ের জন্য নিবন্ধিত প্রতিটি জেলে পরিবারকে ৫৬ কেজি চাল দেওয়া হবে।

উপকূলীয় জেলেরা জানান, এ নিষেধাজ্ঞায় উপকূলে অর্ধলক্ষাধিক মানুষের কর্মসংস্থান বন্ধ থাকবে দীর্ঘ দুই মাস।

সূত্র: যুগান্তর

সর্বশেষ

সর্বশেষ