মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ || ৩ আষাঢ় ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৩:৫৩, ২০ মে ২০২৪

পুড়ে যাওয়া বঙ্গবাজার পাচ্ছে নতুন বিপণি বিতান, উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

পুড়ে যাওয়া বঙ্গবাজার পাচ্ছে নতুন বিপণি বিতান, উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
সংগৃহীত

আ*গুনে পুড়ে যাওয়া বঙ্গবাজারের ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের পুনর্বাসনের লক্ষ্যে বঙ্গবাজার পাইকারি নগর বিপণি বিতান নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ঢাদসিক)। আগামী শনিবার (২৫ মে) সকাল ১১টায় এর নির্মাণকাজ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

রোববার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সংযোগ বিভাগ থেকে এসব তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

গত বছরের ৪ এপ্রিল ভোরে ফুলবাড়িয়ার আদর্শ মার্কেটে প্রথম আগুন লাগে। এরপর মুহূর্তের মধ্যে সেই আগুন পুরো মার্কেটে ছড়িয়ে পড়ে। পুড়ে যায় বঙ্গবাজার মার্কেট। অগ্নিকাণ্ডের পর সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আধুনিক মার্কেট নির্মাণের কথা জানানো হয়। ইতোমধ্যে পুরো বঙ্গবাজার খালি করা হয়েছে। নির্মাণকাজ শুরুর আগের কর্মযজ্ঞ চলছে বর্তমানে।

সিটি কর্পোরেশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একই দিন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন গৃহীত পোস্তগোলা থেকে রায়ের-বাজার স্লুইস গেট পর্যন্ত ‘৮ সারির ইনার সার্কুলার রোড’ এবং ধানমন্ডি হ্রদের পাড়ে ‘নজরুল সরোবর’ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করবেন।

গত বছরের ৪ এপ্রিল বঙ্গবাজার কমপ্লেক্সে সংঘটিত ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের পুনর্বাসনের লক্ষ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নতুন করে বঙ্গবাজার পাইকারি নগর বিপণি বিতান নির্মাণের উদ্যোগ নেয়।

এছাড়াও পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণের ফলে দক্ষিণবঙ্গের ২১টি জেলা এবং চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের ১৬ জেলা থেকে আনা উত্তরবঙ্গগামী বাসগুলোকে যেন আর ঢাকা শহরের ভেতরে প্রবেশ করতে না হয়, সেজন্য পোস্তাগোলা ব্রিজ থেকে রায়ের বাজার স্লুইচ গেট পর্যন্ত আট সারির ইনার সার্কুলার রোড প্রতিষ্ঠায় উদ্যোগ নেয় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন। উদ্যোগের অংশ হিসেবে প্রথম পর্যায়ে কামরাঙ্গীরচরের লোহারপুল থেকে রায়ের বাজার স্লুইচ গেট পর্যন্ত আট সারির সড়ক নির্মাণ করা হবে। এই সড়কের মাঝের দুই-দুই চার সারি এক্সপ্রেসওয়ে এবং দুই পাশে দুই-দুই চার সারি সার্ভিস লেন হিসেবে রাখা হয়েছে।

পাশাপাশি নগরীতে পর্যাপ্ত গণ-পরিসর সৃষ্টির উদ্দেশ্যে ধানমন্ডি আবাসিক এলাকার রোড নম্বর ১৩/এ ও ৮/এ সংলগ্ন ধানমন্ডি হ্রদের পাড়ে নজরুল সরোবর নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ

সর্বশেষ