বৃহস্পতিবার   ২৩ মে ২০২৪ || ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৭:৫০, ১৫ মে ২০২৪

ডোনাল্ড লুর ঢাকা সফর

সম্পর্ক পুনর্গঠনের বার্তা যুক্তরাষ্ট্রের

সম্পর্ক পুনর্গঠনের বার্তা যুক্তরাষ্ট্রের
সংগৃহীত

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক পুনর্গঠন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। ঢাকা সফররত যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ডোনাল্ড লু গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের সঙ্গে আলোচনায় এই বার্তা দিয়েছেন। সালমান এফ রহমান গত রাতে সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান।

সালমান এফ রহমান বলেন, ‘নির্বাচনের পরে উনারা (যুক্তরাষ্ট্র) আমাদের (বাংলাদেশ) সঙ্গে সম্পর্ক আরো ভালো করতে চান। অনেক খাতে তাঁরা কাজ করতে চান।’

লুর সঙ্গে আলোচনা প্রসঙ্গে উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেন, “নির্বাচনের আগে উনাদের সঙ্গে যে ভুল-বোঝাবুঝি হয়েছে, সেটা আমরাও তুলি নাই, উনারাও তোলেন নাই। আমরা চাচ্ছি আমেরিকার সঙ্গে যেন আমাদের সম্পর্কটা ভালো হয়। উনি বলেছেন, ‘উই ওয়ান্ট রিবিল্ড দ্য ট্রাস্ট’ (আমরা আস্থা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে চাই)।

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা বলেন, র‌্যাবের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা নিয়েও ডোনাল্ড লুর সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে। লু বলেছেন, এটি যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের বিষয়।

সালমান এফ রহমান বলেন, ‘ফিলিস্তিন প্রসঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। লু আমাদের জানিয়েছেন, তাঁরাও অস্ত্রবিরতি চান। শিগগিরই এ বিষয়ে সমাধান আসবে।’

নৈশ ভোজে লুর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস, মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক ব্যুরোর চিফ অব স্টাফ ন্যাথানিয়াল হাফটসহ আরো তিন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশের পক্ষে সালমান এফ রহমান ছাড়াও নৈশ ভোজে আরো উপস্থিত ছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু, তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ এ আরাফাত, পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন, সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, সাবেক রাষ্ট্রদূত ফারুক সোবাহান, ঢাকা স্কুল অব বিজনেসের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ।

ডোনাল্ড লুর সঙ্গে বিএনপি নিয়ে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না, জানতে চাইলে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ এ আরাফাত বলেন, রাজনীতি, মানবাধিকার নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। মূলত বাংলাদেশের সঙ্গে তারা যেসব বিষয়ে কাজ করতে চায়, সেসব বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

নৈশ ভোজ শেষে রাত পৌনে ১১টায় সালমান এফ রহমানের বাসা ত্যাগ করে মার্কিন প্রতিনিধিদল। পরে পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন সাংবাদিকদের বলেন, ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতায় দুই দেশ সম্মত হয়েছে।

তিন দিনের সফরে গতকাল দুপুরে ডোনাল্ড লু ঢাকায় পৌঁছেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উত্তর আমেরিকা অনুবিভাগের মহাপরিচালক খন্দকার মাসুদুল আলম বিমানবন্দরে তাঁকে স্বাগত জানান। গত ৭ জানুয়ারি বাংলাদেশে জাতীয় নির্বাচনের পর যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার এটিই প্রথম ঢাকা সফর।

এদিকে প্রথম দিন খাবার হিসেবে বাংলাদেশি ফুচকার প্রশংসা করেছেন লু। যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস প্রকাশিত এক ভিডিওতে ঢাকায় আমেরিকান ক্লাবে শেফের পোশাকে ডোনাল্ড লু, মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস এবং সেলিব্রিটি শেফ রহিমা সুলতানাকে ফুচকা ও ঝালমুড়ি তৈরির আয়োজনে অংশ নিতে দেখা যায়। সেখানে অন্যদের সঙ্গে ডোনাল্ড লুও বলছিলেন, ‘বাংলাদেশি ফুচকা সেরা!’

জানা গেছে, ঢাকায় নেমেই যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসে কর্মরত কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন লু। পরে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের বাসায় এ দেশের নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন। ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম, বাংলাদেশ সেন্টার ফর উইমেন ওয়ার্কার্স সলিডারিটির নির্বাহী পরিচালক কল্পনা আক্তার, শ্রমিক নেতা বাবুল আখতার, পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক অ্যাক্টিভিস্ট ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিসের নির্বাহী প্রধান সোহানুর রহমান এবং মানবাধিকারকর্মী নুর খান লিটন বৈঠকে অংশ নেন।

ডোনাল্ড লুর নেতৃত্বে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বৈঠকে চিফ অফিস স্টাফ ন্যাথানিয়াল হাফট, ব্যুরো অব ইন্টেলিজেন্ট অ্যান্ড রিসার্চের বিশ্লেষক সারাহ আল্ডরিচ, মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস, ইউএসএআইডির মিশন ডিরেক্টর রিড এসলিম্যান, পলিটিক্যাল কাউন্সেলর আর্তুরো হাইনস, ডেপুটি পলিটিক্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক কাউন্সেলর শ্যারন ফিটজগ্যারল্ড, পলিটিক্যাল অ্যাটাশে ম্যাথিউ বেহ অংশ নেন।

বৈঠক শেষে ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিসের নির্বাহী প্রধান সোহানুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, বৈঠকে বাংলাদেশের নির্বাচন-পরবর্তী গণতন্ত্র ও মানবাধিকার পরিস্থিতি, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি, শ্রমনীতির অগ্রগতি, জলবায়ু সংকটসহ নানা বিষয়ে কথা হয়েছে। গণমাধ্যম যেন স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারে, সে বিষয়ে নিজের অবস্থান জানিয়েছেন লু। জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা ও তরুণদের উপকূলীয় এলাকা রক্ষায় লু আহবান জানিয়েছেন। সোহান বলেন, বৈঠকে গাজায় ফিলিস্তিনিদের হত্যার নিন্দা জানিয়েছে নাগরিক প্রতিনিধিদল।

সফরসূচি অনুযায়ী ডোনাল্ড লু আজ সকালে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী এবং বিকেলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। আজ দুপুরে তিনি আনুষ্ঠানিক বৈঠক করবেন পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে। এর বাইরে তিনি আজ বিকেলে বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্সে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। আগামীকাল বৃহস্পতিবার দিনের প্রথমার্ধেই তাঁর ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে।

এদিকে ডোনাল্ড লু তাঁর এবারের বাংলাদেশ সফরে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে কেন সাক্ষাৎ করছেন না—এমন প্রশ্ন ওঠে গত সোমবার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের ব্রিফিংয়ে। যুক্তরাষ্ট্র কি বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতি নিয়ে অবস্থান বদলেছে—এমন প্রশ্নও করেন একজন সাংবাদিক।

জবাবে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখ্য উপমুখপাত্র বেদান্ত প্যাটেল বলেছেন, ‘অবস্থান বদলায়নি। আমাদের সরকারি কর্মকর্তারা কার কার সঙ্গে দেখা করবেন, তা সফরসূচি, সময়সহ অন্য আরো অনেক কিছুর ওপর নির্ভর করে।’

বেদান্ত প্যাটেল বলেন, ‘অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি লু দক্ষিণ এশিয়ার কয়েকটি দেশ, বিশেষ করে ভারত, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ সফর করছেন। ওই দেশগুলোর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদার এবং অবাধ, উন্মুক্ত ও সমৃদ্ধ ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন জানাতে তিনি এ সফর করছেন।’

বেদান্ত প্যাটেল বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সহযোগিতা এবং অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারসহ যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সহযোগিতা জোরদারে ডোনাল্ড লু বাংলাদেশ সরকারের কর্মকর্তা, নাগরিক সমাজের নেতা ও অন্য বাংলাদেশিদের সঙ্গে বৈঠক করছেন।

সূত্র: কালের কন্ঠ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ