সোমবার   ২০ মে ২০২৪ || ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১১:৪৯, ২২ এপ্রিল ২০২৪

তীব্র গরমে মানুষের পাশে সুপেয় পানি নিয়ে ‘টিম খোরশেদ’

তীব্র গরমে মানুষের পাশে সুপেয় পানি নিয়ে ‘টিম খোরশেদ’
সংগৃহীত

বৈশাখের তাপদাহে পুড়ছে দেশ। শিল্পকারখানা অধ্যুষিত নারায়ণগঞ্জেও বিগত কয়েক দিনের তাপমাত্রা অসহনীয় হয়ে উঠেছে। এমন পরিস্থিতিতে শহরবাসীর মাঝে সুপেয় পানি নিয়ে হাজির স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘টিম খোরশেদ’। শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে দিনমজুর, খেটে পাওয়া মানুষ, পথচারী ও সাধারণ মানুষকে বিনামূল্যে বিশুদ্ধ পানি খাওয়াচ্ছেন সংগঠনটির সদস্যরা। সেই সঙ্গে জানাচ্ছেন,যতদিন দাবদাহ থাকবে ততদিন এই উদ্যোগ অব্যাহত রাখবেন তারা।

রোববার (২১ এপ্রিল) সকাল থেকে শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাঢ়া শহীদ মিনারসহ বিভিন্ন স্পটে দেখা গেছে তাদের পানি বিতরণ করতে। পথচারীরাও তৃষ্ণা মেটাতে আগ্রহ নিয়ে পান করছেন এ পানি। 

পথচারী আসমা জানান, গরমে গলা শুকিয়ে কাঠ হয়ে গেছে, তবে কোথাও সেভাবে বিশুদ্ধ পানি না পাওয়ায় পান করিনি। যখন টিম খোরশেদের পানি বিতরণ দেখলাম তখন তাদের কাছ থেকে পানি নিয়ে পান করলাম। কারণ করোনাকালীন সময় থেকে তাদের সংগঠনের প্রতি আস্থা আছে। তারা মানুষের উপকার করে। 

একই কথা বলেন রিকশাচালক সাদ্দাম। তিনি জানান, রোদে রিকশা চালিয়ে গলা শুকিয়ে গিয়েছিল। এখানে পানি দিচ্ছে দেখে পান করলাম। এখন ভালো লাগছে। গরমটা বেশী পড়ে গেছে।

টিম খোরশেদের টিম লিডার কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বলেন, আমরা গত কয়েকদিনের গরমে দেখলাম শহরের পথচারী, দিনমজুর, রিকশাচালকসহ সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। এই গরমে বেশি বেশি পানি পান করতে উপদেশ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। তবে পথে চলা অবস্থায় পানি পাওয়াটা অনেক সময় কষ্টকর হয়ে উঠে। আর পেলেও সেটি বিশুদ্ধ কিনা তাও নিশ্চিত হওয়া যায় না। আবার গরমে পানিবাহিত রোগও বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে করে আমরা মানুষের মাঝে বিশুদ্ধ পানি নিয়ে হাজির হয়েছি। এখানে মানুষ পানি পানও করতে পারবে, আবার বোতলে ভরে নিয়েও যেতে পারবে।

তিনি বলেন, তীব তাপপ্রবাহে মানুষের সঙ্গে বোতল ভর্তি পানি রাখা উচিত। আর সমাজের সামর্থ্যবানদের আহ্বান জানাচ্ছি যার যার বাড়ির সামনে সম্ভব হলে বিশুদ্ধ পানি পানের ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য।

সূত্র: ঢাকা পোষ্ট

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ