বৃহস্পতিবার   ২৩ মে ২০২৪ || ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৫:২০, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

উপজেলা নির্বাচন

মন্ত্রী-এমপিদের প্রভাব না খাটানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

মন্ত্রী-এমপিদের প্রভাব না খাটানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
সংগৃহীত

আসন্ন উপজেলা নির্বাচন যেন শান্তিপূর্ণ হয় সে জন্য মন্ত্রী ও স্থানীয় সংসদ সদস্যদের প্রভাব বিস্তার না করতে নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন মন্ত্রী-এমপিদের প্রভাব বিস্তার না করতে। নির্বাচন যাতে শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠুভাবে হয়, কেউ কোনো প্রকার হস্তক্ষেপ করবে না।

প্রশাসন কোনো প্রকার হস্তক্ষেপ করবে না।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বিঘ্নে ভোটদানের ব্যবস্থা করেছে নির্বাচন কমিশন। উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি না এলেও তাদের অনেকেই অংশ নেবেন। বিএনপি প্রকাশ্যে উপজেলা নির্বাচনের বিরোধিতা করলেও আমাদের জানামতে তাদের অনেকেই অংশগ্রহণ করবেন।

এবারের উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক থাকবে না।’

বিশ্ব পরিস্থিতির কথা তুলে ধরে দেশের দ্রব্যমূল্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, আজ সারা বিশ্বই বলতে গেলে একটা রণক্ষেত্রে রূপ নিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে দ্রব্যমূল্য একটা সহনীয় অবস্থায় বিরাজমান রাখার জন্য যে শ্রম দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী, এটা বিরল ঘটনা। তিনি বলেন, ‘ঈদে অর্থপ্রবাহ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে আমাদের অর্থনীতি কিছুটা চাঙ্গা হয়েছে।

নেতানিয়াহু হিটলারের চেয়েও ভয়ংকর

গাজায় গণহত্যার নায়ক ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু হিটলারের চেয়েও ভয়ংকর রূপে আবির্ভূত হয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘সারা বিশ্বই রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। মনে হয়, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় হিটলারের যে দাম্ভিকতা, যুদ্ধংদেহি মনোভাব ছিল, সেটা আবারও নতুন করে বিশ্বরাজনীতিতে দেখতে পাচ্ছি। হিটলার যে হলোকস্ট ঘটিয়েছিলেন ৬০ লাখ ইহুদি হত্যা করে, আজ সেই একই রূপে আবির্ভূত হয়েছেন গাজায় গণহত্যার নায়ক ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এই নেতানিয়াহু জাতিসংঘকে মানেন না, হোয়াইট হাউসকে তোয়াক্কা করেন না।

আমেরিকান প্রেসিডেন্টের কথা শোনেন না। তিনি হিটলারের চেয়েও ভয়ংকর রূপে আবির্ভূত হয়েছেন। ১৪ হাজার শিশুকে গাজায় এরই মধ্যে হত্যা করে ফেলেছেন।’

মন্ত্রী বলেন, ইরানের আক্রমণের পর পৃথিবীর প্রভাবশালী রাষ্ট্রগুলো যুক্তরাষ্ট্রসহ ইসরায়েলকে শান্ত থাকার নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু নেতানিয়াহু আবারও ইরান আক্রমণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এতে মনে হয়, বর্তমান বিশ্বে সবচেয়ে শক্তিধর ব্যক্তি হচ্ছেন নেতানিয়াহু। আপন ইচ্ছায় চলেন, যা খুশি করেন। যাকে ইচ্ছা তাকে মারেনও। ভাতে মারেন, পানিতে মারেন, এয়ার স্ট্রাইক করে মারেন। এটা পৃথিবীর ভয়ংকর চিত্র। তাঁর দাপট মনে হয় হিটলারকেও ছাড়িয়ে যাবে।

সূত্র: কালের কন্ঠ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ