বৃহস্পতিবার   ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ || ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রকাশিত: ১৪:১৪, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

বিএনপিই দেশে গুম-খুনের রাজনীতি শুরু করেছিল: হানিফ

বিএনপিই দেশে গুম-খুনের রাজনীতি শুরু করেছিল: হানিফ
সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, এ দেশে গুম-খুনের রাজনীতি বিএনপিই শুরু করেছিল। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে গুম-খুনের রাজনীতি শুরু করেন। পরবর্তীতে খালেদা জিয়া সেই ধারা বজায় রেখেছিলেন। সেই দলের নেতারাই আবার এখন মানবাধিকার নিয়ে বড় বড় কথা বলেন।

সোমবার কুষ্টিয়া জেলা শিল্পকলা অডিটোরিয়ামে কুষ্টিয়া মুক্ত দিবসের আলোচনা সভায় অংশ নেয়ার আগে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার ঘটনা ছিল সবচেয়ে বড় মানবাধিকার লঙ্ঘন। এই নিষ্ঠুর ঘটনার সঙ্গেও জিয়াউর রহমান জড়িত ছিলেন। বিএনপির সময়ে ২আওয়ামী লীগের ৫ থেকে ২৬ হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছিল। সেই বিএনপি নেতাদের মুখে গুম-খুন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ মানায় না। এটা হাস্যকর।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে রাজনীতি থেকে গুম-খুনের সংস্কৃতি নির্মূল করেছে। মানবাধিকার ও দেশের জনগণের ভোটের অধিকার রক্ষা করেছে।

আওয়ামী লীগের এ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, আসন ভাগাভাগি নিয়ে ১৪ দলীয় জোটে কোনো অসন্তোষ নেই। আমাদের নিয়মিত বৈঠক চলছে। খুব দ্রুত আসন ভাগাভাগির বিষয়টি নিষ্পত্তি হবে।

তিনি বলেন, জোটের শরিক দলের প্রার্থীরা নৌকা প্রতীক নিয়েই ভোট করবেন। এছাড়া আসন বণ্টনের বাইরেও ১৪ দলীয় জোটের প্রার্থীরা কোথাও দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে চাইলে সেটাও পারবেন।

সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়