• শনিবার   ১০ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জমি চাষ করার সময় নিচ থেকে বের হয়ে আসল মাগুর মাছের ঝাক

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২  

মানব সভ্যতার আদি কাল থেকে মানুষ জীবনধারণের জন্য বিভিন্নভাবে মাছ ধরে আসছে। মানুষ জীবনধারণের জন্য বিভিন্ন ধরনের পেশায় নিয়োজিত থাকে। গ্রামে মানুষের পেশার মধ্যে অন্যতম একটি পেশা হচ্ছে মাছ ধরা। আবার অনেকে শখের বসেও মাছ ধরে থাকে।প্রাচীন কাল থেকেই মানুষ খাদ্য ও আমিষের চাহিদা পূরণ করতে অন্যতম পরিপূরক হিসেবে মাছ শিকার করে খেয়ে আসছে। মাছ অতি সহজ লভ্য ও পুষ্টির এমন একটি ভান্ডার যার দ্বারা একজন মানব শরীরের পুষ্টি চাহিদা পূরণ করা যায়।

মাছের বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান যা বেড়ে উঠতে অনেক সাহায্য করে। অনেকের কাছে মাছ শিকার করা একটি নেশার মতো। আজকের এই ভিডিওটিতে মাছ ধরা চিত্র ধারণ করা হয়েছে। আমরা অনেক সময় ইউটিউব কিংবা বিভিন্ন যোগাযোগ গণমাধ্যমে বিভিন্ন মাছ ধরার ভিডিও সচরাচর দেখে থাকি। আজকের এই ভিডিওটিতে এক ভিন্ন পদ্ধতিতে মাছ ধরার ভিডিও ধারণ করা হয়েছে। আমরা সচরাচর মাছ ধরে থাকি বিভিন্ন রকম দেশীয় কিংবা উন্নত ধরনের সরঞ্জাম ব্যবহার করে। কিন্তু আজকের এই ভিডিওটিতে কোন সরঞ্জাম ছাড়াই বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় মাছ ধরা ভিডিও ধারণ করা হয়েছে।

অনেকে মজার ছলে সখের বসে মাঝে মাঝে মাছ ধরতে গিয়ে ভিডিও গুলো করে থাকে। বর্তমানে ইউটিউব কিংবা বিভিন্ন গণমাধ্যম এর মাধ্যমে এই ভিডিওগুলো খুব সহজে ছড়িয়ে পড়ে এবং প্রচুর পরিমাণে ভাইরাল হয়। ঠিক তেমনি আজকের এই ভিডিওটিতে মাছ ধরার যে চিত্র ধারণ করা হয়েছে তা প্রচুর পরিমাণে ভাইরাল হয়ে যায়। আমরা সকলেই জানি মাছ ধরতে বিভিন্ন সরঞ্জাম এবং পরিশ্রম করতে হয়। কিন্তু এই ভিডিওটিতে ছেলেটি কোন সরঞ্জাম ছাড়া এবং অল্প পরিশ্রমে খুব কম সময়ে অনেকগুলো মাছ ধরে ফেলে। এই ধরনের দেশী মাছ ধরার আনন্দটাই আলাদা।

দেখা গিয়েছে ধানক্ষেতে ট্রাক্টর দিয়ে জমি চাষ করার সময় বড় বড় মাগুর মাছ বেরিয়ে আসছে। বড় বড় মাগুর মাছ গুলো খেতের জকের নিচে পানির মধ্যে লুকিয়ে ছিল। যখন এর উপর দিয়ে ট্রাক্টর চলাচল করতে শুরু করল তখন মাছগুলো উপরে আসতে শুরু করে। ট্রাক্টর এর আঘাতে মাছগুলো আধমরা হয়ে উপরে ভেসে আসে। এবং ছেলেটি হাত দিয়েই কোন সরঞ্জাম ছাড়া মাছ গুলো ধরে ধরে একটি একটি করে বালতিতে রাখে। এবং সে খুব কম সময়ে অনেকগুলো মাছ ধরতে সক্ষম হয়।

তবে যারা সচরাচর মাছ ধরে তারা অবশ্যই এই পদ্ধতিতে খুব সহজেই মাছ ধরতে পারবে। ট্রাক্টর দিয়ে যখন জমি চাষ করা হয় ট্রাক্টর এর মধ্যে অবস্থিত লাঙ্গল এর আঘাতে বিভিন্ন ছোট বড় মাছ আঘাত খেয়ে আধমরা হয়ে ভেসে ওঠে। বিশেষ করে যারা ট্রাক্টর দিয়ে চাষবাস করে থাকে তারাই এই পদ্ধতিতে মাছ ধরতে পারে। এই পদ্ধতিতে মাছ ধরার জন্য পূর্বে কোন প্রস্তুতি থাকে না। ট্রাক্টর দিয়ে হাল চাষ করার সময় যে জমিগুলোতে মাছ থাকে এবং অল্প পানি থাকে শুধুমাত্র সেই জমি গুলো থেকে এই পদ্ধতিতে মাছ ধরা সম্ভব।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা