• শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২২ ১৪২৭

  • || ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

৮৫

শিশুদের সামাজিক দূরত্ব শেখাতে এলো করোনাভাইরাস গেম

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২০  

করোনাভাইরাস সংক্রমণের এই সময়ে শিশুদের জন্য বিশ্বের প্রথম করোনাভাইরাস গেম বানালেন এক অধ্যাপক।

রিচার্ড ওয়াইজম্যান নামের এই ব্যক্তি ব্রিটেনের ইউনিভার্সিটি অব হার্টফোর্ডশায়ারের মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক। সম্প্রতি শিশুদের জন্য তিনি ‘ক্যান ইউ সেভ দ্য ওয়ার্ল্ড’ নামে এমন একটি গেম চালু করেছেন। গেমটির মাধ্যমে শিশুরা সামাজিক দূরত্ব সম্পর্কে বুঝতে পারবে।

রিচার্ড ওয়াইজম্যান জানান, লকডাউন চলাকালীন সময়ে তিনি বৃটেনে একবার হাঁটতে বের হয়েছিলেন। তখন এক পথচারী ও সাইকেল আরোহীর ধাক্কা খাওয়ার একটি বিষয় তার কাছে কম্পিউটার গেমের মতো মনে হয়েছিলো। আর তখনই ওই গেমের আইডিয়া তার মাথায় আসে।

গেমটিতে ব্যস্ত রাস্তায় কীভাবে পথচারী, সাইকেল আরোহী এবং মানুষের হাঁচি-কাশি এড়িয়ে চলা যায় সেটা দেখানো হয়েছে। গেমটির প্রধান লক্ষ্য যতটা সম্ভব মানুষের জীবন বাঁচানো। গেমটিতে নিজেকে রক্ষার পাশাপাশি যত বেশি মানুষকে বাঁচানো যাবে গেমের স্কোর তত বাড়তে থাকবে।

ওয়াইজম্যান বলেছেন, গবেষণায় দেখা গেছে,যেসব গেমে সামাজিক ইতিবাচক আচরণকে উৎসাহিত করে সেগুলো বাস্তবেও মানুষকে প্রভাবিত করতে পারে।

ডিজাইনার মার্টিন জ্যকবকে নিয়ে করা ওয়াইজম্যানের সেই গেমটি এরই মধ্যে অনলাইনে ভাইরাল হয়ে উঠেছে। তিনি বলেন, ভয়ঙ্কর বার্তা পৌঁছে দেয়ার এটা বেশ মজার উপায়।

ওয়াইজম্যান জানান, অনেক গবেষণায় দেখা গেছে, ভিডিও গেমের মাধ্যমে যদি বার্তা নির্দিষ্ট উপায়ে দেয়া হয় তাহলে তা মানুষকে বিশেষ করে শিশুদের জীবনে সত্যিকারের প্রভাব ফেলে।

গেমটির নির্মাতারা বলছেন, সরকার, স্কুল এবং স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ সামাজিক দূরত্বকে উত্সাহিত করতে গেমটি ব্যবহার করতে পারে । তাদের মতে, লকডাউন তোলার পর সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এটি বেশ কাজে লাগবে।

ওয়াইম্যান আরো জানান, চালু করার পর এখন পর্যন্ত ১৫ হাজার মানুষ গেমটি খেলেছেন। যদিও খেলাটি শিশুদের উৎিসাহিত করার জন্য, কিন্তু বড়রাও গেমটি খেলছেন। সেই সঙ্গে টুইটারেও পোস্ট দিচ্ছেন।

গেমটির ট্রেলার দেখুন এখানে.....

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর