• শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৭

  • || ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

নেভাদা ও অ্যারিজোনায় এগিয়ে বাইডেন

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ৬ নভেম্বর ২০২০  

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা যেন কাটছেই না। কী হতে যাচ্ছে, কে হচ্ছেন পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট তা নিয়ে জল্পনা থামছে না। আপাতদৃষ্টিতে দেশটির প্রেসিডেন্ট হওয়ার দৌড়ে জো বাইডেন এগিয়ে থাকলেও ফল কিন্তু পাল্টে যেতে পারে যে কোনো সময়। গণনা শেষ হওয়া রাজ্যগুলোর ইলেকটোরাল কলেজের ভোটে বাইডেন ‘ম্যাজিক ফিগারের’ (২৭০) প্রায় কাছাকাছি চলে আসলেও শেষ পর্যন্ত তিনিই যে বিজয়ী হবেন এটা এখনো নিশ্চিত নয়।

তবে নেভাদা-অ্যারিজোনায় এগিয়ে গেছেন বাইডেন, অন্য ২ রাজ্যেও ব্যবধান কমছে। যেটা বাইডেনের জন্য সুখবর। এখন পর্যন্ত দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস ও গার্ডিয়ানের মতে, শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টা পর্যন্ত ইলেক্টোরাল ভোটে এগিয়ে রয়েছেন ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন। বাইডেন পেয়েছেন ২৬৪ ইলেক্টোরাল ভোট আর রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প পেয়েছেন ২১৪ ইলেক্টোরাল ভোট।

আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের মতে, এখন জর্জিয়া (১৬টি ইলেক্টোরাল ভোট), নেভাদা (৬টি ইলেক্টোরাল ভোট), অ্যারিজোনা (১১টি ইলেক্টোরাল ভোট) ও পেনসিলভানিয়া (২০টি ইলেক্টোরাল ভোট)- এই চার রাজ্যে ঝুলে আছে দুই প্রার্থীর ভাগ্য। তবে কোনো কোনো সংবাদমাধ্যমের চোখ নর্থ ক্যারোলাইনার (১৫টি ইলেক্টোরাল ভোট) দিকেও।

শুধু পেনসিলভানিয়া বা বাকি চারটি রাজ্যের যে কোনো দু’টিতে জয় পেলে জো বাইডেন হবেন যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট। তবে ট্রাম্পের ক্ষেত্রে পথটা কঠিন। আবারো হোয়াইট হাউজের দায়িত্ব ফিরে পেতে তার পেনসিলভানিয়া এবং সঙ্গে বাকি চারটি রাজ্যের তিনটিতে জয় দরকার।

এর মধ্যে নেভাদা ও অ্যারিজোনায় এগিয়ে বাইডেন। জর্জিয়া ও পেনসিলভেনিয়াতেও তিনি ব্যবধান কমিয়ে আনছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ রাজ্য ও ডিস্ট্রিক অব কলাম্বিয়া (রাজধানী অঞ্চল) মিলে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মোট ইলেক্টোরাল ভোট ৫৩৮টি। বিজয়ী হওয়ার জন্য প্রয়োজন ২৭০টি ইলেক্টোরাল ভোট। সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান বলছে, এখনো ট্রাম্পের প্রেসিডেন্টে হওয়ার সুযোগ রয়েছে।

দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের তথ্যানুযায়ী, জর্জিয়ায় ৯৯% ভোট গণনা শেষ হয়েছে। এ রাজ্যে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ট্রাম্প মাত্র ১৯০২ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন। দু’জনের ভোট পাওয়ার হার একই- ৪৯.৪%।

অ্যারিজোনায় বাইডেন ৪৬ হাজার ২৫৭ ভোটে এগিয়ে। তবে রাজ্যের সব ভোট গোনা শেষ হয়নি। গণনা হয়েছে ৯০% ভোট। যদিও অ্যারিজোনার ১১ ইলেক্টোরাল ভোট বাইডেনের ঝুলিতেই দেখছে দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস।

নেভাদায় ফল সামান্য ব্যবধানে ঝুলে আছে। বাইডেন মাত্র ১১ হাজার ৪৩৮ হাজার ভোটে এগিয়ে রয়েছেন। নেভাদায় এখনো প্রায় ১৬% ভোট গণনা বাকি। বিশ্লেষকদের মতে, এ রাজ্যের ভোট ফলাফলে বড় প্রভাবক হিসেবে কাজ করতে পারে। ঘুরে যেতে পারে ফলাফল।

পেনসিলভানিয়ায় ব্যবধান আরো কমে এসেছে। ৯০% ভোট গণনা শেষ হয়েছে। ট্রাম্প ৪১ হাজারের বেশি ভোটে এগিয়ে রয়েছেন। নর্থ ক্যারোলাইনায় ৯৪% ভোট গণনা শেষ হয়েছে। এখানে ৭৬ হাজার ৭০১ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন ট্রাম্প।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল ৬টায় আর বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। শেষ হয় স্থানীয় সময় রাত ৯টায় (বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল ৮টায়)।

ভোটের শুরুতেই কেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। এবার নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতার আশঙ্কা যেমন আছে, তেমনি আছে জয়-পরাজয় নিয়ে দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের সম্ভাবনা।

পরিস্থিতি এতটাই উত্তেজনাপূর্ণ যে, সহিংসতার আশঙ্কায় দেশজুড়ে অনেক দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আগে থেকেই বন্ধ রাখা হয়েছে। জনমত জরিপ সত্য হলে বাইডেনের সহজেই জয়ী হওয়ার কথা, এমনকি তার নিরঙ্কুশ জয়ও অসম্ভব নয়।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা