• শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৮

  • || ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

নিউ জিল্যান্ড সিরিজও শেষ তামিমের

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০২১  

আঙুলে শেষ পর্যন্ত অস্ত্রোপচার লাগছে না। তামিম ইকবালের জন্য যা স্বস্তির খবরই। তবে বাংলাদেশ দলের জন্য অস্বস্তির খবরও আছে। অন্তত ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহের আগে ব্যাট হাতে ফেরা হচ্ছে না তার। নিউ জিল্যান্ড সফরে তাই যেতে পারবেন না অভিজ্ঞ এই ওপেনার।

 

চিকিৎসার জন্য ইংল্যান্ডে থাকা তামিম সোমবার লিডসে দেখা করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সঙ্গে। পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে ও আপাতত ব্যবস্থা বাতলে দিয়ে চিকিৎসক জানান, আগামী মাসের শেষ সপ্তাহে আবার তামিমের আঙুলের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করবেন তিনি।

ডিসেম্বরের মাঝামাঝিই নিউ জিল্যান্ড সফরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ দলের। পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শুরু হওয়ার আগেই তাই নিশ্চিত পরের সিরিজেও তামিমের না থাকা।

ইংল্যান্ড থেকে ফোনে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তামিম বললেন, অনেকটা সময় মাঠের বাইরে থাকতে হলেও দুশ্চিন্তার বড় একটা পাথর সরে গেছে তার বুক থেকে।

“খুব টেনশনে ছিলাম যে অপারেশন লাগে নাকি। সেটা আর লাগছে না। অপারেশন করাতে হলে ৮ থেকে ১২ সপ্তাহের জন্য বাইরে থাকতে হতো। এখন ডাক্তার বলেছেন, আমার একটা ফ্র্যাকচার প্রায় সেরে উঠেছে। আরেকটি আপাতত সারবে না। ব্যথাও থাকবে। তবে আমার হাতের রেঞ্জ স্বাভাবিক হওয়ার জন্য চার সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে।”

“ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে উনি আবার আঙুল দেখবেন বলে জানিয়েছেন। দেখার পর সবুজ সঙ্কেত পেলে, তখন হয়তো হালকা ব্যাটিং শুরু করতে পারব।”

নেপালে এভারেস্ট প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে গত ৬ অক্টোবর ব্যাটিংয়ের সময় বাঁহাতে বুড়ো আঙুলে আঘাত পান তামিম। দেশে ফিরে এক্স-রে করিয়ে ধরা পড়ে চিড়। মাসখানেক সময় মাঠের বাইরে থেকে এই মাসে তিনি শুরু করেন ব্যাটিং।

শুরুতে টেনিস বলে হালকা ব্যাটিংয়ের পর নেটে পুরোদমে ব্যাটিংয়ে ফেরেন। কিন্তু পেস বোলিং খেলতে গেলেই অনুভব করছিলেন ব্যথা। সেই ব্যথার কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়েই গত ১৪ নভেম্বর আবার এক্স-রে করিয়ে ধরা পড়ে নতুন চিড়।

এরপর ভিডিও কলে চিকিৎসককে দেখিয়ে তার পরামর্শ মতোই পরীক্ষা-নিরিক্ষা করানোর জন্য ইংল্যান্ডে যান তামিম।

নিউ জিল্যান্ড সফরে দুটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। প্রথমটি শুরু নতুন বছরের প্রথম দিনে, মাউন্ট মঙ্গানুইতে।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা