• বুধবার   ২৯ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৪ ১৪২৯

  • || ২৭ জ্বিলকদ ১৪৪৩

দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করায় ফখরুলের বিচার হওয়া দরকার

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের জন্য যে লবিস্ট নিয়োগ করেছিলেন, এজন্য তার বিচার হওয়া দরকার। একইসঙ্গে বিএনপিরও বিচার হওয়া দরকার। 

তিনি বলেন, এসব যদি ইউরোপের কোনো দেশে হতো, তাহলে বিএনপি মহাসচিবের বিরুদ্ধে মামলা হতো। বিএনপি দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য চিঠি দিয়েছে। যেন দেশের সব সহযোগিতা ও সুযোগ সুবিধা বন্ধ করে দেওয়া হয়। মির্জা ফখরুল চিঠির বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

সোমবার তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।  তিনি বলেন, আমরা যখন বিএনপির লবিস্ট নিয়োগের সব দলিল-দস্তাবেজ উপস্থাপন করলাম, তখন তারা স্তব্ধ হয়ে গেল। এখন তাদের আর কোনো জবাব নেই। এখন নিজেদের অপকর্ম ঢাকার জন্য তারা নানা কথা বলেন। সরকার দেশের ভাবমূর্তি রক্ষার জন্য লবিস্ট নিয়োগ করে। শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বের কারণে করোনার মধ্যেও রফতানি বৃদ্ধি পেয়েছে। সরকার দেশের স্বার্থ ও ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার জন্য লবিস্ট নিয়োগ করে। 

তথ্যমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন কমিশন নিয়োগে সার্চ কমিটি নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করার কোনো সুযোগ নেই। তাদের সব কিছুতে না বলা অভ্যাস। এর থেকে বের হতে না পারলে তারা কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা জানি না। নির্বাচনকালীন সময়ে সরকার একজন কনস্টেবলও বদলি করতে পারে না। তখন সবার চাকরি নির্বাচন কমিশনের হাতে চলে যায়। নির্বাচন কখনো সরকারের অধীনে হয় না।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, দেশের জনগণের ওপর বিএনপির কোনো আস্থা নেই। তাদের আস্থা বিদেশি শক্তির ওপর। তাদের মূল উদ্দেশ্য হলো দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে জল ঘোলা করা।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা