• মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২০ ১৪২৯

  • || ০৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

পলাশবাড়ী উপজেলা আ`লীগের সম্মেলন, সাধারণ মানুষের মধ্যে আগ্রহ বেশী

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ৯ মার্চ ২০২২  

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা শাখার ত্রি বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে দলীয় নেতাকর্মীরা সহ সর্বস্তরের মানুষের মাঝে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। আগামী ১৩ মার্চ সম্মেলনে এই রাজনৈতিক দলটির নেতৃত্বে কারা আসবেন সেটা দেখার অধির আগ্রহে পলাশবাড়ীবাসী। এ সম্মেলন কে ঘিরে রয়েছে প্রার্থীতার বাহার। চলছে আলোচনা সমালোচনা সভাপতি সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করবেন বলে জানা গেছে। সভাপতি হিসাবে দায়িত্বরত পরীক্ষিত মুজিব সৈনিক যিনি র্দীঘদিন সংগঠন কে আগলে রেখেছেন সেই আবু বকর প্রধান সম্মেলনে আবারো সভাপতি পদপ্রার্থী। সভাপতি পদে আরো প্রতিদ্বন্দিতা করবেন সহ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব একেএম মোকসেদ চৌধুরী বিদ্যুৎ, অধ্যক্ষ সাইফুল্যার রহমান চৌধুরী তোতা,শহিদুল ইসলাম বাদশা। সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দি প্রার্থী হিসাবে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন প্রার্থী বর্তমান সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ শামিকুল ইসলাম লিপন,যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ভোট বাবু, আজাদুল ইসলাম ,সাংগঠনিক সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম মন্ডল,ফিরোজ কবির সুমন,যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক নির্মল মিত্র, সদস্য ও জাতীয় শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুজ্জামান প্রান্ত,শেখ শামসুজোহা হিটু,উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম পাপুল। সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দিতা করতে তারা প্রস্তুতি গ্রহন করেছেন। বর্তমান কমিটির নিকট উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগের কমিটি চলমান রয়েছে।
 
উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃণমুল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের দাবী ও জেলা কমিটির সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের ঘোষণা ও নির্দেশনা অনুযায়ী দলের পরীক্ষিত নবীন ও প্রবীন নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে আগামী দিনে কমিটি গঠনের জন্য বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের প্রতি দলীয় কাউন্সিলরগণের আগ্রহ ও সমর্থণ বেশী বলে জানা যায়। দলীয় নেতাকমীরা আরো মনে করেন ,সংগঠন পরিচালনায় শুধু সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের একক দায়িত্ব থাকে না সকল সদস্যের করণীয় থাকে তাই দোষ ও গুণ শুধু একক কোন ব্যক্তির হতে পারে না। সংগঠনের সকলে মিলে যখন কোন কিছু করা যায় তা সহজেই সফল হয়। কমিটি গুলোর নেতারা দলের র্দূদিনে যেমন গুটিয়ে থাকে তেমনি নির্বাচন গুলো শুরু হলে তারা অসহায় হয়ে পড়ে এমতবস্থায় একজন সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের কি বা করনীয় থাকে। তবুও তারা চেষ্টা চালিয়ে গেছেন, দলের জন্য কাজ করে চলছেন র্দীঘদিন। কাউকে ছুড়ে ফেলে দেবার জন্য আর কাউকে বুকে টেনে নেওয়ার জন্য নয়,পরীক্ষিত ও নির্যাতিত নেতাকর্মীদের স্থান করে দিতে আগামীদিনের এ সম্মেলন।
 
উপজেলা আওয়ামীলীগের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নেতারা জানান,দলের হাই কমান্ডের নির্দেশনার আলোকে সম্মেলন সফল করা হবে। ইলেকশন নয় বরং সিলেকশনেই নবীন ও প্রবীন নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে কমিটি অনুমোদন করবে জেলা কমিটি। ১৩ মার্চ সম্মেলন কে সফল করতে সকল ধরণের রাজনৈতিক প্রস্তুতি গ্রহন করেছে পলাশবাড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগ।
 
সচেতন মহলের দাবী পলাশবাড়ীতে আওয়ামীলীগ সমর্থিত জাতীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রয়েছেন। উপজেলা আওয়ামীলীগ যদি এসময়ে এসে সুংসংগঠিত হতে না পারে তবে আগামীদিনে দলের শৃংখলা ভেঙ্গে পড়বে আর দায়িত্ববোধ হারিয়ে যাবে।
দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা