• মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২০ ১৪২৯

  • || ০৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

সাঘাটায় এক ইউপি চেয়ারম্যানের নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

পঞ্চম ধাপে চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি হয়েছে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার সাঘাটা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংসতায় গত বছরের ২৮ ডিসেম্বর সাঘাটা ইউনিয়নের কচুয়াহাট এলাকায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কার্যালয়সহ কর্মী-সমর্থকদের ১৬টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে প্রতিপক্ষের লোকজন। এসময় আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোশারফ হোসেন সুইট প্রতিশ্রুতি দেন প্রত্যেককে নতুন মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার। নির্বাচনে বিজয়ী হন মোশারফ হোসেন সুইট। গত ৩ ফেব্রুয়ারি শপথ নেন তিনি। চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরুর মাত্র ২১ দিনে ব্যক্তিগত অর্থায়নে নতুন মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার সেই প্রতিশ্রুতি গত বৃহস্পতিবার রক্ষা করলেন এই ইউপি চেয়ারম্যান।

ইউপি চেয়ারম্যান জানান, গত বুধবার পালসার, অ্যাপাচি, ডিসকভার, বাজাজ, টিভিএসসহ বিভিন্ন মডেলের ১৬টি মোটরসাইকেল একে একে সারিবদ্ধভাবে রাখা হয় সাঘাটা ইউনিয়ন পরিষদের বারান্দায়। পরে বৃহস্পতিবার বিকেলে পরিষদ চত্ত¡রে মোটরসাইকেলগুলো দেওয়া হয় ক্ষতিগ্রস্তদের। এতে ব্যয় হয়েছে ২০ লক্ষাধীক টাকা।

নতুন মোটসাইকেল পেয়ে মাসুদ, সাইদুর ও আলিউরসহ কয়েকজন বলেন, দলীয় স্বার্থে নির্বাচনী কাজে গিয়ে মোটরসাইকেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেক জনপ্রতিনিধি আছেন যারা প্রতিশ্রæতি দেন কিন্তু তা রক্ষা করেন না। তাই আমরাও আশা করিনি নতুন মোটরসাইকেল পাবো। কিন্তু সেই ধারনা পাল্টে দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সবাইকে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া মডেলেরই নতুন মোটরসাইকেল কিনে দিয়েছেন। প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন সুইট নজিরবিহীন এক দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করলেন।

এই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে প্রশংসায় ভাসছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত এই চেয়ারম্যান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ নিজ এলাকায় তাকে নিয়ে চলছে আলোচনা। মোশারফ হোসেন সুইট পরপর তিনবার ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে সাঘাটা ইউনিয়ন পরিষদে দায়িত্ব পালন করছেন।

এ বিষয়ে সাঘাটা ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন সুইট বলেন, নির্বাচনী সহিংসতায় যাদের মোটরসাইকেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তারা দলের একনিষ্ঠ কর্মী ও আমার সমর্থক। মোটরসাইকেলগুলো নির্বাচনী কাজে আনা হয়েছিল। মোটরসাইকেল ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তারা বিপাকে পড়বেন। বিষয়টি আমাকে ভাবিয়ে তোলে। এজন্য আমি তাদেরকে নতুন মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিই। সে অনুযায়ী আমি আমার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেছি।

মোটরাসাইকেলগুলো দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন গাইবান্ধা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মো. আনোয়ারুল ইসলাম, সাঘাটা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ সাইদুর রহমান দুলু, সাঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওয়ারেছ আলী প্রধান ও সাধারণ সম্পাদক শামসীল আরেফিন টিটু এবং সাঘাটা ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন সুইটসহ ইউপি সদস্যরা।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা