• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৯

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৪

সুন্দরগঞ্জে কয়েলের আগুনে গোয়াল ঘর পুড়ে ছাই

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ৩ ডিসেম্বর ২০২১  

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে গোয়াল ঘরে কয়েলের আগুন থেকে সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডের চারটি গরু ও দুইটি ছাগলসহ প্রায় চার লক্ষাধিক টাকার মালামাল ভষ্মিভূত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০২ ডিসেম্বর) ভোর ৩টার দিকে উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের তালুক সর্বানন্দ গ্রামে ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ওই গ্রামের ইমান হোসেনের ছেলে মো. শফিউল হোসেনের (৫০) গোয়াল ঘরে কয়েলের আগুন থেকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এদিকে, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ-আল-মারুফ, প্রকল্ল বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ওয়ালিফ মণ্ডল, নব-নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম ও চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পরিদর্শন শেষে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে নগদ দশ হাজার টাকা, কম্বল ও দুই প্যাকেট শুকনা খাবার প্রদাণ করা হয়। সেই সাথে নব-নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ওই পরিবারকে নগদ ১০হাজার টাকা দেন।

ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার ও প্রতিবেশীরা জানান, বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে শফিউল হোসেন তার গোয়াল ঘরে মশা তাড়াতে কয়েলে আগুন ধরিয়ে দেন। এরপর রাত ৮টার দিকে তিনি গোয়াল ঘরে প্রবেশ করে সব ঠিকঠাক দেখতে পান। সর্বশেষ তিনি রাত ১০টার দিকে গোয়াল ঘরে ঢুকে গরুসহ সব কিছু দেখে ঘুমিয়ে পড়েন। পরে ভোর তিনটার দিকে আগুনের বিকট শব্দে সবার ঘুম ভাঙ্গে। তখন শফিউল চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আগুন নিভানোর কাজ শুরু করেন। পরে স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এতে ৪টা গরু, ২টি ছাগলসহ গোয়াল ঘর পুড়ে যায়

ক্ষতিগ্রস্থ শফিউল হোসেন বলেন, 'সন্ধ্যা ৭টায় গোয়াল ঘরে কয়েল ধরিয়েছি। পরে রাত ৮টা ও ১০টার দিকে গোয়াল ঘরে ঢুকে সব ঠিকঠাক দেখতে পাই। হঠাৎ করে আগুনের বিকট শব্দে আমার ঘুম ভাঙ্গে। ঘুম থেকে উঠে দেখি আমার সব শেষ। সংসার চলার একমাত্র সম্বল গরু আগুনে ছাই হলো।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে নব-নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম বলেন, 'অগ্নিকান্ডের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে আসি। এঘটনায় আমি মর্মাহত। বিষয়টি তাৎক্ষণিক উপজেলা প্রশাসনকে জানাই। তাঁরাও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এসময় আমার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে নগদ আর্থিক সহায়তা করেছি।'

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা