• মঙ্গলবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৮

  • || ১১ সফর ১৪৪৩

সবুজ রঙে সেজেছে কৃষকের স্বপ্ন

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১  

 

জীবিকার জন্য গাইবান্ধার অধিকাংশ মানুষ কৃষির ওপর নির্ভশীল। সম্প্রতি কৃষকরা আবাদ করেছেন আমন ধান। এ ফসল ঘরে তুলে পরিবারের চাহিদা পূরণে স্বপ্ন দেখছেন তারা। সেই স্বপ্নের ক্ষেত এখন সেজেছে সবুজ রঙে।

সরেজমিনে সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) গাইবান্ধার মাঠপর্যায়ে ঘুরে দেখা যায়, চারিদিকে নজর কাড়ছে সবুজের সমাহার। প্রকৃতির হাওয়ায় মাঠজুড়ে দুলছে ধানের গাছগুলো।

জানা যায়, জেলার শতকরা প্রায় ৭০ ভাগ জনসাধারণ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কৃষি ফসল ঘরে তুলে তাদের মৌলিক চাহিদা পূরণের চেষ্টা করেন। এখানে ধান-পাট-ভুট্টা ও সবজিসহ বিভিন্ন ধরণের ফসল উৎপাদন হয়ে থাকে। এসবের মধ্যে সবচেয়ে লাভজনক ফসল হচ্ছে রোপা আমন ধান।

গাইবান্ধা কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, চলতি রোপা আমন মৌসুমে প্রায় ১ লাখ ৩০ হাজার হেক্টর জমিতে চারা রোপন করেছেন কৃষকরা। এর আগে ব্যনায় নদীর তীরবর্তী ও নিম্নাঞ্চলের প্রায় এক হাজার ২২০ হেক্টর জমির আমন ক্ষেত নষ্ট হয়েছে। অবশিষ্ট জমিতে ইতোমধ্যে পরিচযার্য় কাজও সম্পন্ন হয়েছে। এখন প্রয়োগ করা হচ্ছে সার-কীটনাশক। আর কিছু দিন পরই ধানগাছের বুকচিরে বের হবে ধানশীষ। সেটি সোনালী রঙে পরিনত হলেই কৃষকরা ঘরে তুলবেন স্বপ্নের ফসল। এরপর তাদের ঘরে দেখা দেবে নবান্নের উৎসব।

কৃষক মফিজ উদ্দিন ব্যাপারী বলেন, এছরের ৪ বিঘা জমিতে আমন চাষাবাদ করা হয়েছে। এসব ক্ষেতে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা। প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে অধিক ধান ঘরে তোলা সম্ভব।

গাইবান্ধা জেলা কৃষি বিভাগের উপ-পরিচালক মাসুদুর রহমান জানান, যাতে করে কৃষকরা ভালো ফলন নিতে পারে, সে বিষয়ে তাদের সার্বিক পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। সেই সঙ্গে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের প্রণোদনার আওতায় আনা হবে।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা