• মঙ্গলবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ১২ ১৪২৮

  • || ১৯ সফর ১৪৪৩

পলাশবাড়ীতে ২৪ টি গৃহহীন পরিবার পেয়েছে স্বপ্নের ঠিকানা

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১০ জুলাই ২০২১  

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জম্নশত বার্ষিকি উপলক্ষে ২য় পর্যায়ে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় মোট ৪০ টি ঘড় বরাদ্দ পাওয়া যায়। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট ২৪ টি ঘরের কাজ শতভাগ সম্পন্ন হয়েছে বলে উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানাযায়।

গত ২০ জুন গন প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যেম দেশ ব্যাপি এক যোগে এসব ঘড় উদ্ধোধন।

এরইধারাবাহিকতায় গত ২০ জুন পলাশবাড়ী উপজেলা বঙ্গবন্ধু হলরুম থেকে সুবিধাভোগীদের মাঝে এসব ঘর ও দলিল সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রদান করা হয়।

এসময় গাইবান্ধা ০৩ পলাশবাড়ী সাদুল্লাপুর আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ উম্মে কুলসুম স্মৃতি, পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব একেএম মোকছেদ চৌধুরী বিদুৎ,পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুজ্জামান নয়ন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবু বক্কর প্রধান ও সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ শামিকুল ইসলাম লিপন সহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক রাজনৈতিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সরেজমিন তথ্যানুসন্ধানে নির্মানাধীন ২৪ টি ঘড় ঘুড়ে দেখা যায় প্রকল্পটির প্রাক্কলন ডিজাইন মোতাবেক ১ নং ইট, উন্নত মানে বালু ও টিন ব্যবহার করা হয়েছে।ফলে অন্যান্য উপজেলার চেয়ে পলাশবাড়ী উপজেলায় এই প্রকল্প বাস্তবায়নে দুর্নীতি কোন চিত্র ওঠে আসেনি।

নির্ভরযোগ্য একটি সুত্রে জানাযায় পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুজ্জামান নয়ন নিজে প্রত্যাক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে এই প্রকটি বাস্তবায়ন করেছে।

ইউপি চেয়ারম্যানরা বর্তমান ইউএনও দুর্নীতি ও অনিয়মকে প্রশ্রয় না দেয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই আগ্রাধিকার প্রকল্প আশার আলো দেখেছে।তারা আরো বলেন অবশিষ্ট ১৬ টি ঘর নির্মানের কাজ চলমান রয়েছে।

নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী জানান দুই একটি উপজেলায় এই প্রকল্প বাস্তবায়নে দুর্নীতি হয়েছে।তাই বলে সারা দেশে তো দুর্নীতি হয় নি।কতিপয় মিডিয়াকর্মী এসব ছবি ব্যাবহার করে সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে।এদের আইনের আওতায় আনা দরকার।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা