বুধবার   ১৭ জুলাই ২০২৪ || ১ শ্রাবণ ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত : ১২:৫১, ৫ জুন ২০২৪

চোখ ভালো রাখে সফেদা, বাড়ায় হজমশক্তি

চোখ ভালো রাখে সফেদা, বাড়ায় হজমশক্তি
সংগৃহীত

সফেদা বা ‘সবেদা’ ফল বেশ মিষ্টি। সফেদার ইংরেজি: নাম Sapodilla; আর বৈজ্ঞানিক নাম: Manilkara zapota। কাচা ফল শক্ত এবং ‘স্যাপোনিন’ সমৃদ্ধ। সফেদা গাছ উষ্ণ ও ক্রান্তীয় অঞ্চল ছাড়া বাঁচে না। শীতল আবহাওয়ায় সহজেই মরে যায়।

সফেদা গাছে ফল আসতে ৫-৮ বছর লাগে। সফেদা গাছ ৩০ মিটার কিংবা এর চেয়েও লম্বা হতে পারে। এর কাণ্ডের ব্যাস ১.৫ মি. পর্যন্ত হতে পারে। এর ছালে প্রচুর সাদা আঠালো কষ থাকে। এতে বছরে দুইবার ফল আসতে পারে যদিও গাছে সারা বছর কিছু কিছু ফুল থাকে। ছোট বড় সবার কাছে এটি আম কিংবা কলার মতই পরিচিত। সফেদা সম্পূর্ণ ফ্যাটমুক্ত।

সফেদা ফল বড় উপবৃত্তাকার ‘বেরি’ জাতীয়। এর ব্যাস ৫-১০ সেমি প্রশস্ত হয়। দেখতে অনেকটা মসৃণ আলুর মত। এর ভেতরে ২-৫ টি বীজ থাকে। ভেতরের শাঁস হালকা হলুদ থেকে মেটে বাদামি রঙের হয়। বীজ কালো। সফেদা ফলে খুব বেশি কষ থাকে। এটি গাছ থেকে না পাড়লে সহজে পাকে না। পেড়ে ঘরে রেখে দিলে পেকে নরম ও খাবার উপযোগী হয়। অত্যন্ত সুস্বাদু ও পুষ্টিকর একটি ফল সফেদা। অসাধারণ ঔষধিগুণ রয়েছে সফেদায়।

সফেদার ঔষধিগুণ-

১. সফেদা চোখের জন্য খুবই উপকারী। এতে বিদ্যমান ভিটামিন ‘এ’ চোখ ভালো রাখতে সাহায্য করে। এতে থাকা ভিটামিন সি চোখ ভালো রাখতে কার্যকর ভূমিকা পালন করে, চোখের রেটিনা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ঝুঁকি কমায়।

২. এটি ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধেও প্রতিরোধ গড়ে তোলে। এ কারণে সর্দি-কাশি সারাতেও এটি দারুণ কার্যকরী। এটি শরীরের যেকোনো ধরনের সংক্রমণও সারায়।

৩. সফেদায় প্রচুর পরিমাণে আঁশ থাকে। যা হজমশক্তি বাড়াতে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য কমাতে দারুণভাবে কাজ করে। 

৪. সফেদা হাড় সুরক্ষার জন্যও খুব উপকারী। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকে বার্ধক্যের ছাপ পড়তে বাঁধা দেয়।

৫. যেহেতু সফেদায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘এ’ এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমৃদ্ধ ভিটামিন ‘সি’ থাকে, এ কারণে এটি ক্যান্সার প্রতিরোধেও দারুণ ভূমিকা রাখে।

৬. সফেদায় প্রচুর পরিমাণে আঁশ থাকে। যা হজমশক্তি বাড়াতে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য কমাতে দারুণভাবে কাজ করে। এ কারণে হজমশক্তি বাড়াতে সফেদা খাওয়া জরুরি।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ