বুধবার   ১৭ জুলাই ২০২৪ || ১ শ্রাবণ ১৪৩১

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত : ১২:৫০, ৫ জুন ২০২৪

পাইলস সমস্যার উপশম করে টিউলিপ

পাইলস সমস্যার উপশম করে টিউলিপ
সংগৃহীত

বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় ফুল টিউলিপ। বাগানের সৌন্দর্য আর ফুলের তোড়ার শোভা বৃদ্ধির জন্য নয়নাভিরাম এই ফুলটি দারুণ ভূমিকা রাখে। গাঢ় ও হালকা রং-এর সমারোহ, বিচিত্র ও সহজলভ্য মনমাতানো রং-এর বাহারের জন্য এই ফুলটি সকলের নিকট সমাদৃত। টিউলিপ (Tulip) বর্ষজীবী ও বসন্তকালীন ফুল হিসেবে পরিচিত। এর বৈজ্ঞানিক নাম Tulipa।

টিউলিপ বাগানে কিংবা বাণিজ্যিকভিত্তিতে জমিতেও চাষ করা হয়। গৃহের অঙ্গসৌষ্ঠব বৃদ্ধিকারী ফুল হিসেবে এর সুনাম রয়েছে। এটি মুকুল থেকে জন্মায়। বিভিন্ন প্রজাতিতে এর উচ্চতা ভিন্নরূপ হয়। সচরাচর ৪ ইঞ্চি (১০ সে.মি.) থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৮ ইঞ্চি (৭১ সে.মি.) পর্যন্ত উচ্চতাসম্পন্ন হয়। অধিকাংশ টিউলিপই ডাঁটা থেকে একটিমাত্র মুকুলের মাধ্যমে বিকশিত হয়। কিন্তু কিছু প্রজাতিতে (যেমন-টিউলিপা তুর্কেস্টানিকা) কয়েকটি ফুল হতে পারে।

জমকালো ও আড়ম্বরপূর্ণ ফুলগুলো সাধারণত কাপ কিংবা তারার আকৃতি হয়ে থাকে। এর তিনটি পুষ্পদল এবং তিনটি বহিঃদল রয়েছে। ফলে এর অভ্যন্তরভাগ গাঢ় রঙের দেখায়। টিউলিপে খাঁটি নীলাভ রং ব্যতীত বিভিন্ন রঙের হয়। আদা বা হলুদের মতো মূলটাই ‘টিউলিপ ফুল’-এর বীজ হিসেবে বিবেচিত। গাছ জন্মের পর থেকে ফুল ফুটে ঝরে যাওয়া পর্যন্ত এদের আয়ুষ্কাল খুবই ক্ষণস্থায়ী, সব মিলিয়ে প্রায় দেড় মাসের মত এদের জীবন। এর ফল মোড়কে ঢাকা। পাতা থাকতে পারে। সাধারণত দুই থেকে ছয়টি পাতা থাকে। প্রজাতিভেদে এ পাতার সংখ্যা সর্বোচ্চ ১২টি হতে পারে। পাতাগুলো নীলাভ সবুজ রঙের হয়। টিউলিপ গাছ বাংলাদেশেও পাওয়া যায়। ভেষজগুণে ভরপুর এই গাছ।

টিউলিপের ভেষজ গুণ:

১. টিউলিপে বিদ্যমান যৌগ মেটাবলিজমকে উন্নত করে এবং দেহের বিষ দূর করে যা ওজন কমাতে খুবই কার্যকরী।
২. হতাশা এবং মানসিক চাপ সাধারণত আসে অনিদ্রা এবং বিশ্রামহীনতার সমস্যা দূর কারণে টিউলিপের পাপড়ি এবং এর নির্যাস অধিক কার্যকরী।
৩. টিউলিপের পাপড়ির দুটি উপকারী ডোজ আপনার দেহ, মন, হৃৎপিণ্ড এবং নার্ভাস প্রক্রিয়াকে স্বাভাবিক রাখে।
৪. পাইলসের সমস্যা দূর করতে টিউলিপ ফুলের রস খুবই উপকারী।
৫. ত্বকের সুরক্ষায় টিউলিপ বিশেষ উপকারী। ত্বকের রুক্ষতা ও তৈলাক্ততা এবং নরম ত্বকের যত্নে টিউলিপ খুবই কার্যকরী।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ