• সোমবার   ১৫ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

  • || ১৬ মুহররম ১৪৪৪

ওষুধের প্রতিক্রিয়া থেকে বাঁচতে কি করবেন?

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ২ আগস্ট ২০২২  

  • অনেক সময় ইনজেকশন বা ভ্যাকসিন দেওয়ার স্থানে পুঁজ হয় এবং সেপসিস বা রক্তপ্রদাহে রূপান্তরিত হতে পারে।

  • কিছু ক্ষেত্রে রোগী অজ্ঞান হতে যেতে পারেন, এমনকি মৃত্যুও ঘটতে পারে।

করণীয়

  • প্রথমেই যে ওষুধ বা ইনজেকশনে আকস্মিক প্রতিক্রিয়া হলো, সেটির পরবর্তী প্রয়োগ বন্ধ করে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে।

  • ইনজেকশন বা ভ্যাকসিন-পরবর্তী ফোলা বা কঠিন হয়ে যাওয়া জায়গায় একটি কলম দিয়ে গোল চিহ্ন করে রাখুন। যদি কয়েক ঘণ্টা থেকে এক দিনের মধ্যে ত্বকের ফোলা ভাব বা শক্ত অবস্থার কোনো পরিবর্তন না ঘটে তবে চিকিৎসককে জানাতে হবে।

  • রোগী অজ্ঞান হয়ে গেলে, শ্বাসকষ্ট শুরু হলে বা ব্লাড প্রেশার বা পালস কম-বেশি হলে দ্রুত হাসপাতালে যেতে হবে।

প্রতিরোধ ও সচেতনতা

  • একবার যে ওষুধ, ইনজেকশন, ভ্যাকসিন বা স্যালাইন প্রয়োগে আকস্মিক প্রতিক্রিয়া হয়েছে, সেটি সব সময় ব্যবস্থাপত্রে লিখে রাখতে হবে। বন্ধুবান্ধব ও স্বজনদের এই ওষুধের বিষয়ে জানতে হবে। পরে যেকোনো চিকিৎসা নিতে গেলে চিকিৎসককে তা জানাতে হবে।

  • অনিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালনে রক্তবাহিত রোগ যেমন হেপাটাইটিস বি, হেপাটাইটিস সি, এইডসসহ বিভিন্ন প্রাণঘাতী জীবাণু সহজেই রক্তের মাধ্যমে রক্তগ্রহীতার দেহে প্রবেশ করতে পারে। তাই পরিচিত ব্যক্তি ও নিবন্ধনকৃত ব্লাড ব্যাংক থেকে রক্ত নেওয়া ও দেওয়া উচিত।

  • চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনো ওষুধ, ইনজেকশন, রক্ত বা স্যালাইন নেওয়া যাবে না।

ডা. মধুরিমা সাহা, রেজিস্ট্রার, ক্রিটিক্যাল কেয়ার মেডিসিন, বারডেম হাসপাতাল

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা