• মঙ্গলবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ১২ ১৪২৮

  • || ১৮ সফর ১৪৪৩

কর্নফ্লাওয়ারের অজানা ১০ ব্যবহার

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ৩ জুলাই ২০২১  

কর্নফ্লাওয়ার গৃহিণীদের কাছে খুবই পরিচিত একটি উপকরণ। গৃহিণীরা এর ব্যবহার নানা মুখরোচক খাবারে করে থাকেন। জানলে অবাক হবেন যে, শুধু রান্নাতেই নয় ঘরের নানা সমস্যা সমাধানে অতুলনীয় কর্নফ্লাওয়ার।

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কর্নফ্লাওয়ারের এমন ১০টি অজানা ব্যবহার সম্পর্কে-

>> যাদের ত্বক খুব তৈলাক্ত, তারা ট্যালকাম পাউডারের সঙ্গে সামান্য কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। এটি শরীরের অতিরিক্ত তেল শুষে নেবে এবং সহজে ঘাম হবে না।

>> চুল খুব তেলতেলে হয়ে আছে অথচ হাতে শ্যাম্পু করার মতো সময় নেই, এমন সমস্যা তো হয়েই থাকে। নির্দ্বিধায় চুলের উপর খানিকটা কর্নফ্লাওয়ার ছড়িয়ে চুল ভালো করে আঁচড়ে নিন। চুলের তেলতেলে ভাব সম্পূর্ণ দূর হবে।

>> চটজলদি শাড়িতে মাড় দেয়ার জন্য পানির সঙ্গে কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে গরম করুন। মিশ্রণ ঘন হয়ে গেলে ব্যবহার করুন মাড় হিসেবে। শাড়ি শুকিয়ে গেলে ইস্ত্রি করে নিন।

>> তরকারির ঝোল খুব বেশি পাতলা হয়ে গেলে তরকারি আঁচে বসিয়ে খানিকটা কর্নফ্লাওয়ার দিন। ভালো করে নাড়ুন। এতে ঝোল ঘন হবে আবার স্বাদও বাড়বে।

>> জানলার কাচ পরিষ্কার করতে কর্নফ্লাওয়ার ব্যবহার করা যায়। কর্নফ্লাওয়ারের সঙ্গে কিছুটা পানি মিশিয়ে একটা মিশ্রণ তৈরি করুন। এই মিশ্রণটি জানালার কাচে লাগিয়ে একটি কাপড় দিয়ে আলতো করে ঘষে নিন। এরপর ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন, কাচ ঝকঝক করবে। কাচে ধুলো জমে ঝাপসা হয়ে গেলে হালকা গরম পানিতে ২ চামচ কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে স্প্রে বোতলে ভরে নিন। কাচের উপর এই মিশ্রণ স্প্রে করে খবরের কাগজ দিয়ে মুছে নিন। কাচ চকচক করবে।

>> গরমকালে জুতা মোজা পরলে পা ঘেমে যায়। সেক্ষেত্রে জুতা পরার আগে কিছুটা কর্নফ্লাওয়ার পায়ে হালকা করে লাগিয়ে নিন। পা ঘামার সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। জুতায় দুর্গন্ধ হলে জুতার মধ্যে কিছুটা কর্নফ্লাওয়ার ছড়িয়ে রাখুন। সারারাত রেখে সকালে ঝেড়ে নিলে আর দুর্গন্ধ থাকবে না।

>> যে কোনো ধরনের দাগ তুলতে কর্নফ্লাওয়ার খুব ভাল কাজ দেয়। পোশাকে তেলের দাগ লাগলে সেই জায়গায় কিছুটা কর্নফ্লাওয়ার ছড়িয়ে দিন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট ওইভাবে রাখুন। এরপর সাবান দিয়ে জায়গাটা ধুয়ে নিন। দাগ উঠে যাবে। পোশাকে কালি বা জেদি দাগ লাগলে কিছুটা কর্নফ্লাওয়ার পানির সঙ্গে মিশিয়ে একটা পেস্ট তৈরি করুন। দাগের জায়গায় পেস্টটা লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। অল্প ভেজা থাকা অবস্থায় নরম টুথব্রাশ দিয়ে জায়গাটা ঘষুন। দেখবেন দাগ চলে যাবে।

>> অনেকের বাড়িতে ঘরের আনাচে কানাচে পোকামাকড় বাসা বাঁধে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সমপরিমাণ কর্নফ্লাওয়ার এবং প্লাস্টার অফ প্যারিস একসঙ্গে মিশিয়ে পোকা ঢোকার রাস্তায় দিয়ে রাখুন। দেখবেন আর পোকা আসবে না। ঘরের মেঝেতে, দরজার কোণায় পোকামাকড়ের বাসা থাকলে কর্নফ্লাওয়ার এবং প্লাস্টার অফ প্যারিস একসঙ্গে মিশিয়ে পানিতে গুলে পেস্ট বানিয়ে নিন। পোকার বাসার মুখ এই পেস্ট দিয়ে বন্ধ করে দিন। পোকার উপদ্রব দূর হয়ে যাবে।

>> রুপার গয়না বা বাসনপত্র কালচে হয়ে গেলে পানির মধ্যে কিছুটা কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে ভাল করে গুলে তার মধ্যে ডুবিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ রেখে নরম ব্রাশ দিয়ে হালকা ঘষে পরিষ্কার পানিতে ধুয়ে নিন।

>> রান্না করতে গিয়ে কোথাও পুড়ে গেলে ফার্স্ট-এড হিসেবে ব্যবহার করুন কর্নফ্লাওয়ার। একটি বাটিতে এক টেবিল চামচ কর্নফ্লাওয়ার এবং ১ টেবিল চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে একটা মিশ্রণ তৈরি করুন। এবার গজ বা পরিষ্কার কাপড় ওই পানিতে ডুবিয়ে পুড়ে যাওয়া জায়গায় লাগিয়ে রাখুন। এতে জ্বালা- যন্ত্রণার উপশম হবে।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা