• সোমবার   ১৫ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

  • || ১৬ মুহররম ১৪৪৪

ক্রিমিয়ায় ন্যাটোর আগ্রাসন তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সৃষ্টি করবে

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ২৮ জুন ২০২২  

সাবেক ইউক্রেনীয় ভূখণ্ড ও বর্তমানে রুশ নিয়ন্ত্রণে থাকা ক্রিমিয়া উপদ্বীপে ন্যাটোর যেকোনো ধরনের আগ্রাসন রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল এবং তা তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সৃষ্টি করতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ। সোমবার (২৭ জুন) এই মন্তব্য করেন তিনি।

সাবেক এই রুশ প্রেসিডেন্ট বর্তমানে রাশিয়ার সিকিউরিটি কাউন্সিলের ডেপুটি চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বপালন করছেন। মঙ্গলবার (২৮ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

সোমবার তিনি বলেন, সামরিক জোট ন্যাটোর কোনো সদস্য-রাষ্ট্র ক্রিমিয়া উপদ্বীপে কোনো ধরনের হামলা বা আগ্রাসন চালালে তা রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার সমান হতে পারে, যা বিশ্বকে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

মস্কোভিত্তিক নিউজ ওয়েবসাইট আর্গুমেন্টি আই ফ্যাক্টিকে দিমিত্রি মেদভেদেভ বলেন, ‘আমাদের কাছে ক্রিমিয়া রাশিয়ার একটি অংশ। এবং এর অর্থ এটি চিরকাল রাশিয়ার অংশ থাকবে। ক্রিমিয়া দখল করার যে কোনো প্রচেষ্টা আসলে আমাদের দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করা।’

তিনি আরও বলেন, ‘এবং যদি ক্রিমিয়া দখল করার যে কোনো প্রচেষ্টা সামরিক জোট ন্যাটোর কোনো সদস্য-রাষ্ট্র দ্বারা করা হয়, এর অর্থ সমগ্র উত্তর আটলান্টিক জোটের সাথে (রাশিয়ার) সংঘর্ষ; একটি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ। এটি সম্পূর্ণ বিপর্যয় সৃষ্টি করবে।’

রাশিয়ার সাবেক এই প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ফিনল্যান্ড ও সুইডেন যদি ন্যাটোতে যোগ দেয়, তবে রাশিয়া তার সীমানা আরও শক্তিশালী করবে এবং (এই দু’টি দেশের বিরুদ্ধে) ‘প্রতিশোধমূলক পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুত’ থাকবে। এমনকি ফিনল্যান্ড ও সুইডেনের ‘দোরগোড়ায়’ ইস্কান্দার হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের সম্ভাবনাও রয়েছে।

এর আগে চলতি জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ে বিশ্ব মানচিত্রে ইউক্রেনের অস্তিত্ব থাকা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন দিমিত্রি মেদভেদেভ। তিনি সেসময় বলেছিলেন, দুই বছরের মধ্যে ‘বিশ্ব মানচিত্রে হয়তো ইউক্রেনের আর অস্তিত্বই থাকবে না’।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বপালনের পর দীর্ঘসময় রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্বপালন করেছেন দিমিত্রি মেদভেদেভ। বর্তমানে তিনি রাশিয়ার সিকিউরিটি কাউন্সিলের ডেপুটি চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করছেন।

উল্লেখ্য, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দীর্ঘ দিনের ঘনিষ্ঠ সহযোগী বলা হয়ে থাকে দিমিত্রি মেদভেদেভকে। ২০১২ সাল থেকে ২০২০ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত মেদভেদেভ রাশিয়ার দশম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বপালন করেন। এছাড়া ২০০৮ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ছিলেন তিনি।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা