• মঙ্গলবার   ২৮ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৩ ১৪২৯

  • || ২৬ জ্বিলকদ ১৪৪৩

বঙ্গবন্ধু যে ভাষণে বলেছিলেন `ভারত-বাংলাদেশ ভাই ভাই`

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ২২ মে ২০২২  

দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালের  ৮ জানুয়ারি পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বদেশের মাটিতে পা রাখেন ১০ জানুয়ারি।  তাকে বরণে উপস্থিত জনতার ঢলে নামে বিমানবন্দরে। বিশাল জনসমুদ্রের সামনে দাঁড়িয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন বঙ্গবন্ধু। নাতিদীর্ঘ ভাষণে জাতিকে দেন দিক নির্দেশনা। 

ওই ভাষণে তিনি স্লোগান তোলেন, 'ভারত-বাংলাদেশ ভাই ভাই'। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে ভাষণটি সংরক্ষিত আছে। ওই ভাষণের একেবারে শেষ দিকে বঙ্গবন্ধু স্লোগান দেন, 'ভারত-বাংলাদেশ ভাই ভাই'। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের ওয়েবসাইটেও ভাষণটি লিখিত আকারে পাওয়া যায়। 

বঙ্গবন্ধু তার ভাষণে বলেন, 'প্রায় ৩০ লাখ মানুষকে মেরে ফেলা হয়েছে, ২য় বিশ্বযুদ্ধে, ১ম বিশ্বযুদ্ধেও এত মানুষ, এত সাধারণ জনগণ মৃত্যুবরণ করে নাই, শহীদ হয় নাই-৪ যা আমার সাত কোটির বাংলায় করা হয়েছে। আমি জানতাম না আমি আপনাদের কাছে ফিরে আসব, আমি খালি একটা কথা বলেছিলাম, তোমরা যদি আমাকে মেরে ফেলে দাও কোনো আপত্তি নাই মৃত্যুর পরে তোমরা আমার লাশটা আমার বাঙালির কাছে দিয়ে দিও এই একটা অনুরোধ তোমাদের কাছে'।

তিনি ওই ভাষণে আরো বলেন, 'আমি মোবারকবাদ জানাই ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধীকে, আমি মোবারকবাদ জানাই ভারতবর্ষের জনগণকে, আমি মোবারকবাদ জানাই ভারতবর্ষের সামরিক বাহিনীকে, আমি মোবারকবাদ জানাই রাশিয়াকে জনগণকে, আমি মোবারকবাদ জানাই জার্মানি, ব্রিটিশ, ফ্রান্স সব জায়গার জনগণকে তাদের আমি মোবারকবাদ জানাই যারা আমাকে সমর্থন করেছে'।

বঙ্গবন্ধু আরো বলেন, 'আমি মোবারকবাদ জানাই আমেরিকার জনসাধারণকে, মোবারকবাদ জানাই সারা বিশ্বের মজলুম জনগণকে-যারা আমার এই মুক্ত সংগ্রামকে সাহায্য করেছে। আমার বলতে হয় এক কোটি লোক এই বাংলাদেশ থেকে ঘরবাড়ি ছেড়ে ভারতবর্ষে আশ্রয় নিয়েছিল, ভারতের জনসাধারণ মিসেস ইন্দিরা গান্ধী তাদের আশ্রয় দিয়েছেন-তাদের আমি মোবারকবাদ না দিয়ে পারি না। যারা অন্যরা সাহায্য করেছেন তাদেরামার মোবারকবাদ দিতে হয়'।

তবে মনে রাখা উচিত বাংলাদেশ স্বাধীন রাষ্ট্র।বাংলাদেশ স্বাধীন থাকবে বাংলাদেশকে কেউ দমাতে পারবে না। বাংলাদেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করে লাভ নাই। আমি যাবার আগে বলেছিলাম ও বাঙালি এবার তোমাদের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম আমি বলেছিলাম ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোল তোমরা ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তুলে সংগ্রাম করছো আমি আমার সহকর্মীদের মোবারক বাদ জানাই। আমার বহু ভাই বহু কর্মী আমার বহু মা-বোন আজ দুনিয়ায় নাই তাদের আমি দেখবো না।

আমি আজ বাংলার মানুষ কে দেখলাম, বাংলার মাটি কে দেখলাম, বাংলার আকাশ কে দেখলাম বাংলার আবহাওয়া কে অনুভব করলাম। বাংলাকে আমি সালাম জানাই আমার সোনার বাংলা তোমায় আমি বড় ভালোবাসি বোধহয় তার জন্যই আমায় ডেকে নিয়ে এসেছে।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা