• শুক্রবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৯

  • || ০৪ রজব ১৪৪৪

জেলের বড়শিতে ৩৫ কেজির দুই কোরাল

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ৪ জানুয়ারি ২০২৩  

টেকনাফের নাফ নদীতে ৩৫ কেজি ওজনের এক জোড়া কোরাল মাছ ধরা পড়েছে এক জেলের বড়শিতে। কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার শাহ পরীর দ্বীপ সীমান্তের নদীতে মঙ্গলবার সকালে মাছ দুটি ধরা পড়ে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের শাহ পরীর দ্বীপ জালিয়া পাড়া এলাকার জেলে আমির হোসেনের বড়শিতে মাছ দুটি ধরা পড়ে। এর মধ্যে বড় কোরালটির ওজন ১৮ কেজি ও ছোট কোরালটির ১৭ কেজি। পরে তিনি মাছ দুটি টেকনাফ পৌরসভার মাছ ব্যবসায়ী নুরুল আলমের কাছে বিক্রি করে দেন।

জেলে আমির হোসেন জানান, শাহ পরীর দ্বীপ জেটিতে বসে নাফ নদীতে সকালে বড়শি ফেলেন তিনি। প্রায় এক ঘণ্টা পর তিনি বড়শি টেনে তোলার চেষ্টা করেন। কিন্তু বড়শি বেশ ভারি মনে হওয়ায় আরও একজনের সহযোগিতা নেন। পরে বড়শি টেনে তুলে দেখেন, একটি কোরাল মাছ আটকা পড়েছে।

এরপর তিনি আবারও বড়শি ফেলেন। তিনবার বিফল হন। কিন্তু চতুর্থবারে আরও একটি মাছ আটকা পড়ে। সেটির ওজন ছিল প্রায় ১৮ কেজির মতো। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে মাছ দুটি দেখতে স্থানীয় লোকজন জেটিতে ভিড় করেন।

আমির বলেন, ইদানীং নাফ নদীতে জেলেদের বড়শিতে কোরাল মাছ ধরা পড়ছে। সকালে ৩৫ কেজি ওজনের কোরাল মাছ দুটি ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি করেছি।

মাছ ব্যবসায়ী নুরুল আলম জানান, পৌরসভার বাসস্টেশন মাছ বাজারে নিয়ে মাছ দুইটি প্রতি কেজি ১ হাজার ২০০ টাকা দামে বিক্রি করার জন্য দাম দিয়ে ছিলাম। পরে এক মাছ ব্যবসায়ীকে কেজি ১ হাজার টাকা দামে ৩৫ হাজার টাকায় বিক্রি করেছি।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা