• শনিবার   ১০ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

‘ঢাকা-মাওয়া’ মহাসড়কে এবার ‘শান্তিনগর-ঝিলমিল’ ফ্লাইওভার

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

‘ঢাকা-মাওয়া’ মহাসড়কটি দুই লেন থেকে চার লেনে উন্নীত করার পাশাপাশি সড়কটি ধরে যাতায়াত আরও সহজ করতে চলতি অর্থবছরের মধ্যেই সরকার নতুন প্রকল্প হাতে নিচ্ছে। রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) কর্তৃক রাজধানীর শান্তিনগর হতে মাওয়া রোড (ঝিলমিল) পর্যন্তফ্লাইওভার নির্মাণ পরিকল্পনার কথা সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

সরকারি অর্থনৈতিক বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটিতে এটি নীতিগত অনুমোদনও পেয়েছে বলে জানিয়েছেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউলকরিম।

একাদশ জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তরকালে মন্ত্রী জানান, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) এর মাধ্যমে শান্তিনগর হতে মাওয়ারোড (ঝিলমিল) পর্যন্ত প্রস্তাবিত ফ্লাইওভারটি বর্তমান সরকারের পিপিপি পদ্ধতিতে নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এজন্য ২০১৩সালের ৯ জানুয়ারি সরকারি মন্ত্রিসভা কমিটিতে অনুমোদন লাভ করেছে।

গত ৯ জানুয়ারি ২০১৩ সালে প্রকল্পটি পিপিপি পদ্ধতিতে বাস্তবায়নের নীতিগত অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা কমিটি। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য ৬টিপ্রতিষ্ঠানের দাখিল করা রিকোয়েস্ট ফর কোটেশনগুলো যাচাই-বাছাই করে ৩টি প্রতিষ্ঠানকে শর্ট লিস্টেড হিসেবে সুপারিশ করা হয়েছে।

এদিকে দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণের কাজ। পদ্মা সেতুর সঙ্গে সংযোগ এ মহাসড়কটি দক্ষিণবঙ্গের২১ জেলাকে ঢাকার সঙ্গে যুক্ত করবে। সেতু চালু হলে জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার দেড় শতাংশ বাড়বে বলে গবেষণায় দেখা গেছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী২০১৯ সালের মধ্যে এ কাজ শেষ হলে এবং পদ্মা সেতু চালু হলে বিনা বাধায় ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু হয়ে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলা পর্যন্ত ৫৫কিলোমিটার পথ ভ্রমণ করা যাবে। এটি হবে দেশের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ে এবং এশিয়ান হাইওয়ের করিডোর-১ এর অংশ। প্রকল্পটি বাস্তবায়নকরছে সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদফতর এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর স্পেশাল ওয়ার্কস অর্গানাইজেশন-এসডাব্লিউও (পশ্চিম)।

প্রকল্পের অধীনে যাত্রাবাড়ী থেকে মাওয়া পর্যন্ত ৩১.৭ কিলোমিটার, ইকুরিয়া থেকে বাবুবাজার পর্যন্ত লিংক রোড ৩.৩০ কিলোমিটার এবং পদ্মারওপারে শরীয়তপুরের পাচ্চর থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার মিলিয়ে সর্বমোট ৫৫ কিলোমিটার জাতীয় মহাসড়কের উন্নয়ন করা হবে।

উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বর্তমান সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় দেশের যোগাযোগ খাতে নতুনমাত্রা যোগ হতে চলেছে এসব প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা