• সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১১ ১৪২৭

  • || ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

‘জ্বালানি খাতে প্রযুক্তিনির্ভর দক্ষ মানবসম্পদ প্রয়োজন’

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০২০  

বাংলাদেশ বর্তমানে জ্বালানি ক্ষেত্রে স্বয়ংসম্পূর্ণ। তবে স্থায়িত্ব বৃদ্ধি ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উৎপাদনে আরও প্রযুক্তিনির্ভর দক্ষ মানবসম্পদ প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। যে গ্যাস বর্তমানে আছে, তা একটা সময় গিয়ে শেষ হয়ে যাবে, কিন্তু চাহিদা থাকবে বলে মনে করেন প্রতিমন্ত্রী।

শুক্রবার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের (আইইবি) যন্ত্রকৌশল বিভাগের উদ্যোগে আইইবি’র শহীদ প্রকৌশলী ভবনের কাউন্সিল হলে ‘এনার্জি সিকিউরিটি অব বাংলাদেশ: ইস্যুজ অ্যান্ড অপশনস্’ শীর্ষক এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যদি প্রযুক্তিবান্ধব দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তুলতে না পারি তাহলে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো না। বাংলাদেশ বর্তমানে জ্বালনি ক্ষেত্রে স্বয়ংসম্পূর্ণ। এই স্বয়ংসম্পূর্ণতার স্থায়িত্ব বৃদ্ধি ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উৎপাদনে আমাদের আরও টেকনোলজিনির্ভর দক্ষ মানবসম্পদ দরকার।’

জ্বালানি ধীরে ধীরে আমদানিনির্ভর হয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের যে গ্যাস তা এক সময় শেষ হয়ে যাবে। আমাদের চাহিদা কিন্তু থাকবে বরং বড়বে। আমরা বিদ্যুৎ, জ্বালনি এবং গ্যাস ক্ষেত্রগুলো নিয়ে মাস্টার প্লান করছি। ঢাকা শহরে গ্যাস ব্যবস্থাপনায় টোটাল অটোমেশন করার জন্য ব্যাপক পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।’

আইইবি’র যন্ত্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ নাসির উদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় সঞ্চালনা করেন বিভাগের সম্পাদক প্রকৌশলী আবু সাঈদ হিরো।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইইবি’র প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. নূরুল হুদা, আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, আইইবি’র সাবেক প্রেসিডেন্ট আবদুস সবুর এবং আইইবি’র ভাইস-প্রেসিডেন্ট (এইচআরডি) মো. নুরুজ্জামান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আবদুস সবুর বলেন, ‘মানব সভ্যতার অস্তিত্ব নির্ভর করে জ্বালানি শক্তির ওপর। দেশের জন্য বর্তমানে জ্বালানি একটি অপরিহার্য সম্পদ। শুধু আমাদের দেশে নয় জ্বালানি ব্যতীত পৃথিবীর গতিশীলতা স্তব্ধ হয়ে যাবে। সভ্যতার ক্রমবিকাশ মান ধারার প্রতিটি ক্ষেত্রে জ্বালানির প্রয়োজন অর্থনৈতিক সকল কর্মকাণ্ড জ্বালানিনির্ভর। একটি দেশের সার্বিক উন্নয়নে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাত অন্যতম চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করে। তাই আমাদের সবাইকে পরিমিত জ্বালানি ব্যবহার করতে হবে। বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে অধিক সচেতনতা অবলম্বন করতে হবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আইইবি’র সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন (শীবলু), জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. ম. তামিম, আইইবি’র ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন এবং জিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আতিকুজ্জামান, ভাইস-চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আহাসন বিন বাশার (রিপন) উপস্থিত ছিলেন।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা