• শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৭

  • || ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

গাইবান্ধা শহরের শীতের পিঠা তৈরীর ধুম

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০  

গাইবান্ধায় শীত পড়তে শুরু করেছে। হাটি হাটি করে এগিয়ে আসছে শীত। বাড়ছে পিঠার কদর। প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকে সকাল পর্যন্ত মানুষের গায়ে অনুভূত হচ্ছে শীত। এতে করে জেলার ৭ উপজেলায় জানান দিচ্ছে শীতের আগমনী বার্তা।
প্রতি বছর অগ্রহায়ন মাসের প্রথম সপ্তাহে এ জেলায় শীতের আগমন ঘটলেও এবার কার্তিক মাসের মাঝামাঝি শুরু হয়েছে শীত। ভোরবেলা পড়তে শুরু করেছে কুয়াশা। দিনের বেলা হালকা গরম থাকলেও গত ৪/৫ দিন হলো সন্ধ্যা নামার পর থেকেই অনুভূত হচ্ছে শীত। এতে করে অনেকে শরীরে ভারি গরম কাপড় পড়তে শুরু করেছেন।
আর এই শীত উপলক্ষে শহরের সার্কুলার রোড আসাদুজ্জামান মার্কেট সংলগ্ন, ধানঘড়ায় সার্কিট হাউজের সামনে, স্টেশন এলাকা, পৌরপার্কে, পুরাতন বাজার, ব্রীজ রোডের ফুটপাতে দেখা মিলেছে ভাপা পিঠা, চিতই পিঠাসহ কয়েক প্রকারের মজাদার শীতের পিঠা তৈরীর ধুম। ফুটপাতের এসব পিঠা দিয়েই অনেকে সকাল ও সন্ধ্যার নাস্তা সেড়ে নেন। গরম ভাপা ও চিতই পিঠা দিয়ে সরিষা বাটা, আলু ছানা ও কচু পাতা বাটা দিয়ে পিঠা খাওয়ার সাধই যেন আলাদা।
শীত আসলে এসব পিঠা তৈরীতে পুরুষের পাশাপাশি নারীদেরকেও ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছে। সকাল এবং সন্ধ্যা দু বেলায় তাদেরকে রাস্তার ধারে বসে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ভাপা পিঠা ও চিতই পিঠা তৈরী এবং বিক্রি করতে দেখা গেছে। এসব নারীদের অনেকে মৌসুমী পিঠা ব্যবসায়ী।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা