সোমবার   ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯   পৌষ ১ ১৪২৬   ১৮ রবিউস সানি ১৪৪১

৫২

গাইবান্ধায় পেঁয়াজ লাগামহীন, বাড়তি সবজির দামও

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০১৯  

গাইবান্ধায় দিনদিন বেড়েই চলছে পেঁয়াজসহ শাক-সবজির দাম। এর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়তে শুরু করেছে চাউলের দামও। নিত্যপণ্যের দাম হু হু করে বাড়ায় ভোক্তাদের মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। এর ফলে শ্রমজীবী মানুষ পড়েছে বেকায়দায়। গতকাল শনিবার (১৬ নভেম্বর) গাইবান্ধার কাচারি বাজারসহ বিভিন্ন হাট-বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রতি কেজি এলসির পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২১০ টাকা, পাতা পেঁয়াজ ১০০ টাকা, কাঁচা মরচি ৪৫ টাকা, আলু ২৫-৩০ টাকা, ফুলকপি প্রতি কেজি ৬০ টাকা, বাঁধাকপি ৩০ টাকা, শিম ৪০-৬০ টাকা, মূলা ৩০ টাকা, লাউ ৪০ (পিস প্রকার ভেদে) টাকা, করলা ৪০ টাকা, বেগুন ৩০ টাকা, বরবটি ৪০ টাকা, ঢেঁড়স ৩৫ টাকা, টমেটো ৯০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, ওল ৪৫ টাকা, ধনেপাতা শাক ১০০ টাকা, পালং শাক ২৫ টাকা, লাল শাক ২০ টাকা, ও চাউল ৩০ থেকে ৩৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। অথচ গত এক সপ্তাহ আগেও এই সব পণ্যের দাম ছিলো কম। তবে গতকালের চেয়ে আজ পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমেছে ৫০ টাকা।

জানা গেছে, গাইবান্ধা জেলায় গেল বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ শ্রমজীবী মানুষ সব কিছু হারিয়ে সর্বশান্ত হয়ে এখনো ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। গো-খাদ্যের সংকটসহ বেড়েই চলছে সবজির দাম। সেই সঙ্গে পেঁয়াজ যেন সোনার হরিণ। প্রতিটি সবজির দাম দ্বিগুণ হারে বেড়ে যাওয়ায় ক্রেতা সাধারণের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। ফলে সবজি এখন সাধারণ মানুষের মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে।

সবজি কিনতে আসা একজন ভ্যানচালক জাকিরুল ইসলাম জানান, বর্তমানে সাধারণ মানুষ বাজার করতে গিয়ে অল্প কিছু সবজি কিনেই বাড়ি ফিরছেন। কারণ সবজির যে দাম তাতে সাধারণ শ্রমজীবী মানুষ হিমশিম খাচ্ছে।

সাদুল্লাপুর বাজারের সবজি বিক্রেতা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, পাইকারি বাজারে দাম বৃদ্ধি হওয়ায় খুচরা বাজারে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

সুন্দরগঞ্জ এলাকার সবজি চাষি মহির উদ্দিন বলেন, এবার ভয়াবহ বন্যা হয়েছে । ফলে শীতকালীন সবজি চাষে বিলম্ব হয়েছে। সেই সঙ্গে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর প্রভাবে অনেক সবজি ফসলের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ কারণে উৎপাদন হয়েছে কম। ফলে দাম একটু বেশি।

গাইবান্ধা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ পরিচালক, ড. এসএম ফেরদৌস জানান, কিছুদিন আগে অতিবৃষ্টিতে সবজির জমিতে পানি উঠায় উৎপাদন কম হয়েছে । ফলে আমদানির তুলনায় চাহিদা বেশির কারণে সবজির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।

গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক মো: আবদুল মতিন  বলেন, পেঁয়াজ-চাউলসহ কাচাঁ সবজি ব্যবসায়ীরা যাতে করে অতিরিক্ত দামের পণ্য বিক্রি করতে না পারে সে বিষয়ে নজদারি রাখা হয়েছে। বাজার তদারকি করার জন্য অভিযান চলমান রয়েছে।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা
এই বিভাগের আরো খবর