• সোমবার   ১২ এপ্রিল ২০২১ ||

  • চৈত্র ২৯ ১৪২৭

  • || ২৯ শা'বান ১৪৪২

কে হচ্ছেন গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার মেয়র?

দৈনিক গাইবান্ধা

প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারি ২০২১  

আর একদিন পর ৩০ জানুয়ারি শনিবার তৃতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার ২৯ হাজার ৯৭৯ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। বেছে নিবেন পৌর মেয়র।

এ নির্বাচনে বৃহত্তম দুই রাজনৈতিক দলের মনোনীত প্রার্থীসহ মোট ৫জন প্রার্থী মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এখন পৌরবাসীর মনে প্রশ্ন কে হচ্ছেন এবার পৌরসভার মেয়র ? ভোটারদের এই প্রশ্নের সমাধানে ইতিমধ্যে সকল প্রার্থী বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি নিয়ে ভোটরদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন।

গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থীরা হলেন-আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য খন্দকার জাহাঙ্গীর আলম (নৌকা), বিএনপি মনোনিত প্রার্থী পৌর বিএনপির সভাপতি ফারুক আহমেদ (ধানের শীষ), বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মুকিতুর রহমান রাফি (নারিকেল গাছ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী আনিসুর রহমান (হাতপাখা) ও একমাত্র মহিলা স্বতন্ত্রপ্রার্থী জহুরা খাতুন আর্নিকা (মোবাইল ফোন)। এছাড়াও ৯ টি ওয়ার্ডে ৪০ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং ৩ টি সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, প্রার্থীদের ছবি এবং প্রতীক সম্বলিত পোষ্টারে ছেয়ে গেছে পৌর এলাকার বিভিন্ন সড়ক, মোড় এবং বাজারের অলিগলি। মাইকে গানের সুরে প্রার্থীরা তাদেও মার্কায় ভোট চাইছেন। প্রতিদিন কাকডাকা ভোর থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত প্রার্থীরা ছুটছেন ভোটারদের কাছে। মনযোগ আকর্ষণ করে দিয়ে যাচ্ছেন বিভিন্ন ধরণের প্রতিশ্রুতি। পাড়া-মহল্লা থেকে শুরু করে সর্বত্রই চলছে আলোচনা-সমালোচনা। সবমিলিয়ে গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনী মাঠ এখন গরম।

এদিকে সাধারণ ভোটাররা ভাবছেন,অধিকার ও উন্নয়নের কথা। পৌর উন্নয়ন আর সাধারণ নাগরিক সুবিধা যাদের নিকট থেকে পাবে তাদেরকেই তারা ভোট দেয়ার কথা ভাবছেন। কিন্তু ভোট বাধামুক্ত হওয়া নিয়ে শঙ্কায় আছেন তারা। আব্দুল আলিম নামের এক ভোটার বলেন, সুখে দুঃখে যাকে কাছে পাব তাকেই ভোট দিব।

অন্যদিকে, ভোটারদের চাহিদা অনুযায়ি পৌরসভার সকল নাগরিকের সাধারণ সুবিধা দেয়ার প্রতিশ্রুতির কথা দিয়ে ভোট চাচ্ছেন মেয়র প্রার্থীগণ। আ’লীগের মেয়র প্রার্থী খন্দকার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এর আগে আমি একাধিকবার পৌরসভার কাউন্সিলর এবং পরে জেলা পরিষদের সদস্য হয়ে এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। বিজয়ী হলে এলাকার উন্নয়ন করবো, মানুষের পাশে থাকবো। বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী ফারুক আহমেদ বলেন, মানুষ ভোটাধিকার নিয়ে চিন্তিত। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হলে ধানের শীষের বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবেনা। স্বতন্ত্র প্রার্থী মুকিতুর রহমান রাফি জানান, ভোটারদের কাছে যাচ্ছি। এতে বেশ সাড়া পাচ্ছি। নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে আমি আশাবাদি।

তবে ভোটার জানায় নৌকা, ধানের শীষ ও নারিকেল গাছ মার্কার ৩ প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে যে কোন এক প্রার্থীর গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে জয়লাভের সম্ভাবনা রয়েছে।

দৈনিক গাইবান্ধা
দৈনিক গাইবান্ধা